অনাবৃষ্টির কারণে আমন চাষাবাদ ব্যাহত

মোঃ হযরত বেল্লাল, সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা): অনাবৃষ্টির কারণে গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলায় আমন চাষাবাদ ব্যাহত হয়ে পড়েছে।

নির্ধারিত সময়ের ২০দিন অতিবাহিত হওয়ার পরও কোন প্রকার বৃষ্টি বাদল না থাকায় আমন ক্ষেতে চারা রোপন করা সম্ভব হচ্ছে না।

দীর্ঘদিন থেকে বৃষ্টি না থাকায় আমন চাষাবাদের জমি ফেটে চৌচির হয়ে গেছে। যার কারণে কৃষকরা মাথায় হাত দিয়ে বসেছে। ইতিমধ্যে অনেক কৃষক সেচের মাধ্যমে আমন চাষাবাদ শুরু করেছে।

চারা রোপন করতে না পাড়ায় বীজতলা নিয়ে বিপাকে পড়েছে কৃষকরা। নির্ধারিত সময় মোতাবেক ১ জুলাই হতে ১৫ আগষ্টের মধ্যে আমন ক্ষেতে চারা রোপন করতে হবে।

উপজেলা কৃষি অফিস সুত্রে জানা গেছে, চলতি মৌসুমে আমন চাষাবাদের লক্ষমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ২৬ হাজার হেক্টর। আমন বীজতলা রয়েছে ১৪ হাজার ৫০০ হেক্টর। উপজেলার শান্তিরাম ইউনিয়নের ৮০ বছর বয়সের কৃষক আলহাজ্ব মোজাহার আলী জানান, তার জীবদ্দশায় তিনি এমন পরিস্থিতিতে পড়েনি।

তিনি বলেন দেরিতে চারা রোপন করলে ফলন কম হওয়ার সম্ভবনা থাকে। তাছাড়া সেচ  দিয়ে আমন চাষাবাদ করলে লাভবান হওয়া যায় না। কারণ উপর থেকে পানি না পড়লে আমন ফলন ভাল হবে না। পোঁকা মাকড়ের উপদ্রব বেশি হয়। উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ রাশেদুল ইসলাম জানান, এখনও আমন চাষাবাদের অনেক সময় রয়েছে।

বৃষ্টি বাদল হলে আগামী ১০ দিনের মধ্যে চারা রোপন করা সম্ভব। এতে করে ফলন কম হওয়ার কোন সম্ভাবনা নাই। তিনি বলেন, অনেক কৃষক ইতিমধ্যে সেচ দিয়ে চাষাবাদ শুরু করেছে। এটি প্রাকৃতিক দুর্যোগ এখানে মানুষের করার কিছু নেই।

This website uses cookies.