মোহামেডান-আবাহনী-জামালের হোম ভেন্যু বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম

প্রথম সকাল ডটকম ডেস্ক: এক ভেন্যুতে সব ক্লাবের খেলা-পেশাদার ফুটবলে এমন নজির হয়তো শুধু বাংলাদেশেই। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের সব ক্লাবেরই পছন্দ বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম। দেশের প্রধান এ ভেন্যু থেকে নড়তে চায় না ক্লাবগুলো।

যে কারণে ঘুরেফিরে ঢাকাবন্দী হয় পেশাদার লিগ। এবার অবশ্য এ জট খুলতে যাচ্ছে, আবার ঢাকার বাইরে ছড়িয়ে যাচ্ছে ঘরোয়া ফুটবলের সবচেয়ে মর্যাদার বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ।

বাফুফের সিদ্ধান্ত বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের একাদশ আসর হবে কমপক্ষে ৫ ভেন্যুতে। সর্বোচ্চ ভেন্যু হতে পারে ৮টি। বাফুফে ক্লাবগুলোকে হোম ভেন্যু পছন্দ করে আবেদন করতেও বলেছিল।

প্রিমিয়ার লিগের ১৩ ক্লাব হোম ভেন্যুর জন্য তাদের পছন্দের স্টেডিয়ামের নাম জমা দিয়েছে। বাফুফের হাতে প্রস্তুত আছে ৯ ভেন্যু। ক্লাবগুলোর হোম ভেন্যুর তালিকায় আছে ৮টি। সবারই আগ্রহ থাকে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে। এবার অবশ্য বেশি ক্লাব ‘হোম অব ফুটবল’কে চায়নি নিজেদের হোম ভেন্যু হিসেবে।

দেশের দুই জনপ্রিয় ক্লাব মোহামেডান, আবাহনীর পাশাপাশি শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব হোম ভেন্যু করার জন্য বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামকে চেয়েছে। প্রিমিয়ার লিগের ১০ আসরের শিরোপা ভাগাভাগি করেছে ৩ ক্লাব আবাহনী, শেখ জামাল ও শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র। একবারের চ্যাম্পিয়ন শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র হোম ভেন্যু হিসেবে চেয়েছে গোপালগঞ্জ স্টেডিয়ামকে।

এক সময় এ স্টেডিয়াম হোম ভেন্যু ছিল মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্রের। তারাও এবার গোপালগঞ্জকে হোম ভেন্যু করতে চেয়েছে। ঢাকার দ্বিতীয় ভেন্যু কমলাপুর বীরশ্রেষ্ট মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামকে নিজেদের ভেন্যু করতে চায় ব্রাদার্স ইউনিয়ন ও পুরোনো ঢাকার ক্লাব রহমতগঞ্জ। চট্টগ্রামের এম এ আজিজ স্টেডিয়ামকে হোম ভেন্যু চেয়েছে চট্টগ্রাম আবাহনী।

প্রিমিয়ার লিগের নতুন দল বসুন্ধরা কিংস হোম ভেন্যু হিসেবে চেয়েছে নীলফামারী স্টেডিয়ামকে এবং নোফেল স্পোর্টিং ক্লাব চেয়েছে নোয়াখালি স্টেডিয়ামকে। ময়মনসিংহ স্টেডিয়ামকে হোম ভেন্যু করতে চায় সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব ও আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ। বিজেএমসির পছন্দ রাজশাহী স্টেডিয়াম।

এই ৮ ভেন্যুর বাইরে সিলেট স্টেডিয়ামও আছে বাফুফের বিবেচনায়। কোনো ক্লাব এ স্টেডিয়ামকে হোম ভেন্যু করতে না চাইলেও শেষ পর্যন্ত এটাও ঢুকে যেতে পারে তালিকায়। ক্লাবগুলোর চাওয়া ৮ ভেন্যুর কোনটি ঠিকঠাকমতো প্রস্তুত না হলে সিলেটেও হতে পারে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের খেলা। ক্লাবগুলোর হোম ভেন্যু হিসেবে স্টেডিয়াম চাওয়া মানেই পেয়ে যাওয়া নয়।

ভেন্যু নির্ধারণ করবে বাফুফের প্রফেশনাল লিগ কমিটি। তারপর সে সিদ্ধান্ত অনুমোদন আসবে বাফুফের নির্বাহী কমিটি থেকে। ২০ আগস্ট ফেডারেশন কাপ দিয়ে ঘরোয়া ফুটবল মাঠে গড়ানোর কথা। প্রিমিয়ার লিগ শুরুর তারিখ নির্ধারণ আছে ২৩ নভেম্বর। ভেন্যু এবং ফেডারেশন কাপ ও লিগ শুরুর বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে পারে প্রফেশনাল লিগ কমিটির পরের সভায়। যে সভা হওয়ার কথা আছে আগামী সোমবার।

This website uses cookies.