ভৈরব বাজারে বিভিন্ন দোকানে চুরির ঘটনায় সংবাদ সম্মেলন

আলহাজ্ব সজীব আহমেদ, (ভৈরব): ভৈরব পৌরশহরের ভৈরব বাজারে বিভিন্ন দোকানে চুরির ঘটনায় ব্যবসায়ীরা পুলিশ প্রশাসনের সহযোগিতা পায়নি এমন অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ভোক্তভোগি ব্যবসায়ীরা।

মঙ্গলবার বেলা ১১টায় ভৈরব সাংবাদিক সমিতির আয়োজনে প্রেসক্লাব মিলনাতয়নে সংবাদ সম্মেলনে ভোক্তভোগি ব্যবসায়ীরা চুরির ঘটনা সাংবাদিকদের অবগত করেন।

গত ২৭জুন ভৈরব বাজরের মিষ্টিপট্টি এলাকায় শুভ জেনারেল ষ্টোরে তালা কেটে ক্যাশবক্স থেকে ১৪ লাখ ৮০ হাজার টাকা চুরি করে নিয়ে যায় একটি সংঘবদ্ধ চোরচক্র। এ ব্যপারে শুভ জেনারেল ষ্টোরের স্বত্ত্বাধিকারি মো: জলিল মিয়া ভৈরব থানায় মামলা দায়ের করেন।

মামলা দায়ের এক সপ্তাহ হলেও চুরি যাওয়া মালামাল উদ্ধারে পুলিশের তৎপরতা নেই বলে অভিযোগ করেন। ভোক্তভোগিরা তাদের বক্তব্যে বলেন, গত কয়েক মাসে ভৈরববাজারে বেশ কয়েকটি বড় চুরির ঘটনায় সাধারণ ব্যবসায়ীরা আতংকের মধ্যে রয়েছে।

৩০ অক্টোবর কাজী রতনের দোকান থেকে ৯ লাখ, ২৭ এপ্রিল কবির ব্রাদার্স থেকে ১০ লাখ টাকা চুরিসহ বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও বাসাবাড়িতে চুরির ঘটনা অব্যহত রয়েছে।২৮ তারিখে ভুক্তভুগি জলিল ভৈরব থানায় অভিযোগ দাখিল করেন।এবং ঘটনার সত্যতা যাচায় কওে নিয়মিত মামলা হিসেবে নথিভুক্ত করা হয়।

ব্যবসায়ীরা জানান, পুলিশ প্রশাসনের কাছে কোন সহযোগিতা পাচ্ছেনা। চুরি প্রতিরোধে বাজারের ব্যবসায়ীরা মানববন্ধন সহ নানা কর্মসূচী পালন করতে গেলে পুলিশ প্রশাসন তাদেরকে বাধা দেয় বলে অভিযোগ ব্যবসায়ীদের। ভৈরব বাজার ফারি থানার ইনর্চাজ মোঃ শরিফুল ইসলাম জানান,অদ্য অবদি আমরা চুরি যাওয়া টাকা উদ্ধার বা চুর সনাক্ত করা সম্ভব হয়নি।

তবে চেষ্টা অব্যহত রয়েছে। উক্ত সংবাদ সম্মেলনে ভৈরব চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি সহ-সভাপতি আরএ মারুকী শাহীন, পৌর প্যানেল মেয়র মো: আল আমিন,উপজেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি শামসুজ্জামান বাচ্চু, পৌর আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি ইফতেখার হোসেন বেনু, শুভ জেনারেল স্টোরের স্বত্ত্বাধিকারী মো: জলিল মিয়া প্রমুখ। এসময় ভৈরব বাজারের কয়েকশত ব্যবসায়ীসহ স্থানীয় সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

This website uses cookies.