গুয়াতেমালায় অগ্ন্যুৎপাত : নিহত ৭৫, নিখোঁজ ২০০

প্রথম সকাল ডটকম ডেস্ক: গুয়াতেমালায় ভয়াবহ অগ্ন্যুৎপাতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭৫ জন। আরও কমপক্ষে ১৯২ জন নিখোঁজ রয়েছে। স্থানীয় কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, রোববার নতুন করে ফুয়েগো আগ্নেয়গিরিতে বিস্ফোরণ ঘটায় বহু হতাহতের ঘটনা ঘটেছে।

আগ্নেয়গিরির কাছাকাছি অবস্থিত বাড়ি-ঘর ছাই আর কাদায় ডুবে গেছে। মঙ্গলবার নতুন করে আগ্নেয়গিরি থেকে গ্যাস ও লাভা নির্গত হওয়ায় উদ্ধারকাজ ব্যহত হয়েছে।

রোববারের বিস্ফোরণের পর ১৭ লাখের বেশি মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এছাড়া আরও তিন হাজার মানুষকে ওই এলাকা থেকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। গুয়াতেমালার সেনাবাহিনীর সদস্যরাও উদ্ধার কাজে দমকল বাহিনীকে সহায়তা করছে।

অগ্ন্যুৎপাতের ভয়াবহ প্রকোপ থেকে বাঁচতে অস্থায়ী আশ্রয়েকেন্দ্রে আশ্রয় নিয়েছেন হাজার হাজার বাসিন্দা। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, অগ্ন্যুৎপাতের শুরুতে আগ্নিয়গিরির মুখ থেকে ছাই, বিষাক্ত গ্যাস ও গলিত পাথর বের হয়। আগ্নেয়গিরির মুখ থেকে নির্গত ছাই প্রায় ১০ কিলোমিটার উঁচুতে উঠেছিল। তবে এখন তা থেমে গেছে।

এল রোডিও, সান মিগুয়েল লস লোটসসহ কয়েকটি গ্রামকে পুরো গ্রাস করে ফেলেছে লাভার স্রোত। এতে একের পর এক ধ্বংস হয়ে গেছে বাড়িঘর এবং ফসলি খেত। অগ্ন্যুৎপাতের কারণে ব্যাপক প্রাণহানি ঘটেছে। শত শত মানুষ আহত হয়েছেন। সোমবার রাজধানী গুয়াতেমালা সিটির দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল থেকে ২৫ মাইল দূরে অগ্ন্যুৎপাতের সূত্রপাত হয়। আগ্নেয়গিরিতে বিস্ফোরণের পর থেকে ১৯২ জন নিখোঁজ রয়েছে।

This website uses cookies.