১৩ বছরে পা রাখলো দীপা খন্দকারের সুখের সংসার

প্রথম সকাল ডটকম: চারদিকে ভাঙনের সুর। তারকাদের বিয়ের খবর পেলেই লোকমুখে ঘুরেফিরে একটা কমন প্রশ্ন-কতদিন টিকবে সংসার? বিরক্তিকর, বিব্রতকর। তবুও এই কথা শোনাটা স্বাভাবিক ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। সম্পর্কের এমনই একটা অস্থির সময়ে অনেকেই ভালোবাসার দারুণ দৃষ্টান্ত সৃষ্টি করে চলেছেন। তারকাদের সংসার মানেই তাসের ঘর নয়।

মৌসুমি-সানী, রিয়াজ-তিনা, নাঈম-শাবনাজ, আজিজুল হাকিম-জিনাত হাকিম, জাহিদ হাসান-মৌ- সফল তারকা দম্পতিদের উজ্জ্বল নাম। সেই তালিকায় আরও একটি উজ্জ্বল তারকা দম্পতি জুটি দীপা-সুজন। আজ থেকে ১২ বছর আগে ভালোবেসে বিয়ে করেছিলেন অভিনেত্রী দীপা খন্দকার ও অভিনেতা শাহেদ আলী সুজন।

আজ রোববার, ২৭ মে তাদের দাম্পত্য জীবন ১৩ বছরে পা রাখলো। এতগুলো দিন পেরিয়েও উচ্ছ্বাস ভরা কণ্ঠে নিজের দাম্পত্য জীবন নিয়ে দীপা বলতে পারছেন, ‘আমরা কিন্তু ভালো আছি, আলহামদুলিল্লাহ।’ ভাঙনের স্রোতে এটুকু সংলাপ দারুণ দৃষ্টান্ত হয়ে আসে সাংসারিক সম্পর্কে থিতু হতে না পারা তারকাদের কাছে।

নিজের বিয়েবার্ষিকী উপলক্ষে দীপা খন্দকার ফেসবুকে একটি আবেগঘন স্ট্যাটাস দিয়েছেন। তিনি লিখেছেন, ‘ফুলের বিছানায় শুয়ে বসে জীবন পার করতে পারিনি, কেউই পারেনা। খুব সহজ ছিলনা আমাদের এই পথচলা। অনেক কঠিন। মাঝে মাঝে মনে হতো অসম্ভব। তারপর ভেবেছি আমাকে পারতেই হবে। ১, ২, ৩, ৪…. এই করে করে আজ ১২ বছর পার করলাম।

তিনি আরও লেখেন, ‘আমার বিয়ের পরদিন অনেক সাংবাদিক ভাইবোন জানতে চেয়েছিল বিয়ের পর কেমন আছেন?? আপনি কি সুখী??? আমি তাদের বলতাম এখনই কিভাবে বলবো সুখী কিনা ৫ বছর যাক তারপর বলি। ১২ বছর পর বলছি ভাইবোনেরা ‘আমরা কিন্ত ভাল আছি। আলহামদুলিললা। এভাবে বাকী জীবন থাকতে চাই। দোয়া করবেন।

একটি টিভি অনুষ্ঠানে দীপা খন্দকার জানিয়েছিলেন নিজের বিয়ের গল্প। তিনি বলেন, একটি নাটকে অভিনয় করতে গিয়ে সুজনের কণ্ঠে ‘পৃথিবীতে প্রেম বলে কিছু নেই’ গানটি শোনেন। সে গান শুনেই সুজনের প্রতি দীপার ভালো লাগা তৈরি হয়। পরবর্তীতে নির্মাতা গিয়াসউদ্দিন সেলিমের মধ্যস্থতায় তারা দুজন বিয়ের পিঁড়িতে বসেন।

দীপা-শাহেদ দুজনই তাদের বিয়ের ঘটক গিয়াসউদ্দিন সেলিমকে ‘উকিল বাবা’র মর্যাদা দিয়েছিলেন। ২০০৬ সালের ২৭ মে। তাদের সংসার আলোকিত করে রেখেছে সাড়ে দশ বছরের পুত্র আদ্রিক ও চার বছরের কন্যা আরোহি।

প্রসঙ্গত, সুখের দম্পতি দীপা-সুজন দুজনই ব্যস্ত সময় পার করছেন নাটক ও চলচ্চিত্রের অভিনয়ে। শাহেদ আলী সম্প্রতি তৌকীর আহমেদের ‘হালদা’ ছবিতে অভিনয় করে প্রশংসিত হয়েছেন। এদিকে দীপা খন্দকার অভিনয় করেছেন ‘ভাইজান এলো রে’ নামের একটি ছবিতে। এখানে দীপাকে দেখা যাবে শাকিব খানের বোনের চরিত্রে।