ট্রেনের যাত্রীদের জন্য কনডমের ব্যবস্থা করছে ভারত

প্রথম সকাল ডটকম ডেস্ক: ভারতে নতুন টয়লেট নীতির অনুমোদন দেয়া হচ্ছে। নতুন এ নীতির আওতায় এখন থেকে রেলওয়ে স্টেশনের ভেতরে এবং বাইরে-সব জায়গাতেই স্যানিটারি ন্যাপকিন এবং কনডম পাওয়া যাবে।

যাত্রীরা ছাড়াও রেলওয়ে সংলগ্ন আশপাশের এলাকার বাসিন্দা এমনকি পরিদর্শনে আসা ব্যক্তিরা সম্পূর্ণ বিনা খরেচে এসব সুবিধা পাবেন। সম্প্রতি ভারতের রেলওয়ে বোর্ড এ নীতির অনুমোদন দিয়েছে। খবর হিন্দুস্তান টাইমস।

নতুন টয়লেট নীতিতে বলা হয়, রেলওয়ে স্টেশনের ভেতরে এবং বাইরে নির্দিষ্ট পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থা না থাকায় স্টেশনের পার্শ্ববর্তী এলাকার বাসিন্দারা (বিশেষ করে পাশ্ববর্তী বস্তি ও গ্রামগুলোর লোকজন) উন্মুক্ত জায়গায় টয়লেট করেন।

এমনকি অনেকে রেলওয়ে চত্বরের মধ্যই প্রসাব করেন-যা অস্বাস্থ্যকর। আর এ কারণেই স্বাস্থ্যজনিত নানা সমস্যা দেখা দিচ্ছে। এসব বিষয় মাথায় রেখে নতুন পলিসির আওতায়, রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ রেলওয়ে চত্বরের মধ্যেই নারী ও পুরুষদের জন্য আলাদা টয়লেট স্থাপন করবে। আর এসব করা হবে মানুষের মাঝে সচেতনতা বাড়ানোর জন্য যাতে করে তারা মাসিক সংক্রান্ত স্বাস্থ্যবিধি ও গর্ভনিরোধক বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে পারে।

নতুন পলিসি অনুযায়ী, রেলওয়ে সংলগ্ন এলাকায় ছোট-বড় প্রতিটি দোকানে নারীদের জন্য ন্যাপকিন ও পুরুষদের জন্য কনডম থাকবে। ইনসিনেরেটরসহ (এক ধরনের দহনযন্ত্র যা অপ্রয়োজনীয় জিনিস পোড়ানোর কাজে ব্যবহৃত হয়) নারীদের ন্যাপকিন প্রদান করা হবে। পুরুষ ও নারীদের পাশাপাশি প্রতিবন্ধীরা এ সুবিধার আওতায় আসবেন।

ভারতীয় ও পাশ্চাত্য দুই ঢঙের কমোডই রাখতে হবে এসব টয়লেটে। নীতিতে আরও বলা হয়, প্রায় সাড়ে ৮ হাজার রেলওয়ে স্টেশনে এসব সুবিধা দিতে যে খরচ হবে তা সিএসআর ফান্ড থেকে মেটানো হবে। সিএসআর ফান্ডের বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে যা আয় হবে, তা দিয়ে এগুলোর রক্ষণাবেক্ষণ কাজে ব্যয় করা হবে।

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *