‘সবার বাসনা কামনার শুভকামনা রইল’

প্রথম সকাল ডটকম: গত ৯ অক্টোবর ২০১৭ বাপ্পা-চাঁদনীর ডিভোর্সের আইনি প্রক্রিয়া শুরু হয় আর শেষ হয় ৯ জানুয়ারি ২০১৮ তে বিবাহের সমাপ্তিতে। চাঁদনী ও বাপ্পা আলাদা ছিলেন ১ বছরের একটু বেশি সময় ধরে। বিষয়টি বাপ্পার তথ্যমতে জানা।

বাপ্পা ইতোমধ্যে বিয়ের ঘোষণা দিয়েছেন। বিয়ে করতে যাচ্ছেন উপস্থাপক তানিয়াকে। সম্প্রতি ফেসবুকে বাগদানের আংটির ছবি শেয়ার করেন তানিয়া।

তারপরই বাপ্পার সঙ্গে বিয়ের গুঞ্জন ওঠে। পরে বিষয়টি বাপ্পা ও তানিয়া দুজনই স্বীকার করেন। বিষয়টি নিয়ে সরাসরি মন্তব্য করছেন না চাঁদনী। ফেসবুকে গতকাল বৃহস্পতিবার তানিয়া ও বাপ্পা যুগলের একটি কোলাজ ছবিও আপলোড করে প্রোফাইল ছবি দেন।

ঘণ্টাখানেক পরে সেটিও সরিয়ে ফেলেন। বাপ্পাকে শুভ কামনা জানিয়ে একটি স্ট্যাটাস লেখেন চাঁদনী। পরে সেটিও মুছে ফেলেন। তারপরেও একটি ছোট্ট পোস্টের মাধ্যমে শুভকামনা জানিয়েছেন বাপ্পা ও তানিয়াকে। চাঁদনী লিখেছেন, ‘হায়রে দুনিয়া। কই যে যাই। আমি আর আমার পরিবার সকলে অনেক ভালো আছি। আর কোনও কিছু চাই না। চাইনি। চাইবোনা। শক্তরে অনেক। ধ্যনবাদ আমার পরিবারের পক্ষ থেকে।

শুভকামনা জাইয়ে চাঁদনী লিখেন, ‘সবার বাসনা কামনার শুভকামনা রইল। আমার আর আমাকে যারা ভালোবাসে তাদের পক্ষ থেকেও। আর কিছু? ২০০৮ সালের ২১ মার্চ চাঁদনীকে বিয়ে করেন বাপ্পা মজুমদার। দীর্ঘ দশ বছর সংসার করার পর সম্পর্কের ইতি টানলেন তারা। আর  ২০০৯ সালের ২০ জুন উপস্থাপক-পরিচালক দেবাশীষ বিশ্বাসকে বিয়ে করেন তানিয়া হোসাইন। বিয়ের এক বছরের মাথায় তাদের বিচ্ছেদ হয়ে যায়।

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *