মোশাররফ করিমের সাথে লাক্সতারকা বৃষ্টি

প্রথম সকাল ডটকম: কিছুদিন আগেই পর্দা উঠলো চ্যানেল আই প্রেজেন্টস লাক্স সুপারস্টার ২০১৮ এর গ্র্যান্ড ফিনালের। প্রায় ১২ হাজার প্রতিযোগিকে পেছনে ফেলে এবারের আসরে প্রথম রানারআপ হয়েছেন মাদারীপুরের মেয়ে সারওয়াত আজাদ বৃষ্টি।

প্রথম রানারআপ হয়ে জিতে নিয়েছেন চার লক্ষ টাকাসহ আরও কিছু সুবর্ণ সুযোগ। লাক্সতারকা খ্যাতি পাওয়া এ মডেল প্রথমবারের মত অভিনয়ে নাম লিখাচ্ছেন।

চলতি মাসের শেষের দিকে ২৮/২৯ তারিখ অংশ নিবেন নাটকের শুটিংয়ে। আসছে ঈদ উপলক্ষে চ্যানেল আই প্রেজেন্টস নাটকের নাম ‘দ্য বস’। নাটকটি পরিচালনা করবেন আবু হায়াত মাহমুদ।

মজার ব্যাপার হল প্রথম নাটকেই বৃষ্টি অভিনয় করবেন দুই পর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা মোশাররফ করিমের সাথে। সেই সাথে থাকবেন মিশু সাব্বিরও। এ প্রসঙ্গে বৃষ্টি বলেন, ‘আমি মডেলিং কিংবা নাচ করলেও অভিনয় করা হয় নি এখনো। তবে মনের মধ্যে অভিনয় করার ইচ্ছাটা অনেক আগে থেকেই ছিলো। ভয় লাগছে অনেক তার পাশাপাশি অনেক নার্ভাস লাগছে।

মোশাররফ করিম অনেক জনপ্রিয় একজন তারকা,তার সাথে কাজ করবো একটু অন্যরকম লাগছে। তবে অনেক ভালো লাগছে। আশা করি আমার জায়গা থেকে সর্বোচ্চ চেষ্টা করবো খুব সুন্দর একটা কাজ উপহার দেওয়ার। বৃষ্টি আরও বলেন, ‘আমার কাছে মনে হচ্ছে আমি আগের মতই আছি। শুধু সামনে এগিয়ে যাওয়ার একটা প্লাটফর্ম তৈরি হয়েছে যেখান থেকে নিজেকে মেলে ধরতে পারবো।

যেহেতু ছোটবেলা থেকেই নাচের সাথে সম্পৃক্ত আর মডেলিং ও করছি সে জায়গা থেকে কাজগুলো চালিয়ে যাবো। আর অভিনয়ের ইচ্ছাটা রয়েছে বেশ,অভিনয় করবো। এখনও আমি কাঁচা, একদমই নতুন। একটু একটু করে শিখতে চাই। নাটকে কাজ করে অভিনয়টাকে আয়ত্তে আনতে চাই, ভালোভাবে শিখতে চাই। অভিনয়ে পরিপক্ক হলে তখন সিনেমায় কাজ করবো।

উল্লেখ্য, দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়ার সময় থেকেই হিন্দোলে নাচ শিখতেন বৃষ্টি। এরপর বাফায় ভর্তি হয়ে সেখানে নাচ শিখতেন। মা সাংস্কৃতিক অঙ্গনের সাথে যুক্ত থাকায় মায়ের কারণেই মিডিয়াতেই আসা বৃষ্টির। বর্তমানে বৃষ্টি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগে ২য় বর্ষে অধ্যয়নরত আছেন। বাবা ব্যবসায়ী, মা ছিলেন রোটারি ক্লাবের প্রেসিডেন্ট। দুই বোনের মধ্যে বৃষ্টিই বড় এবং ছোট বোন এ বছরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অর্থনীতি বিভাগে ভর্তি হয়েছেন।

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *