কিউবার মতো চীনেও সনিক অ্যাটাক?

প্রথম সকাল ডটকম ডেস্ক: এবার কিউবার মতোই চীনেও সনিক অ্যাটাক নিয়ে আতঙ্ক তৈরি হয়েছে। এ বিষয়ে চীনে নিযুক্ত নিজেদের কর্মকর্তাদের সতর্ক করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

২০১৬ সাল থেকে কিউবায় মার্কিন কর্মকর্তাদের ওপর এ ধরনের হামলার অভিযোগ আনে যুক্তরাষ্ট্র। এখন চীনেও এ ধরনের হামলার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। সনিক অ্যাটাক হচ্ছে শব্দ তরঙ্গ ব্যবহার করে হামলা।

সন্দেহজনক এ হামলার শিকার ব্যক্তিরা মস্তিষ্কে সামান্য ক্ষতিসহ কানে না শোনা, মাথা ঘোরা, দৃষ্টি শক্তির সমস্যা এবং বমি বমি ভাবের মতো সমস্যায় ভোগেন।

কিন্তু সমস্যা হচ্ছে এ ধরনের হামলা শব্দ তরঙ্গের মাধ্যমে চালানো হয় বলে তাৎক্ষণিকভাবেই তা শনাক্ত করা সম্ভব হয় না। মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর চীনে অবস্থানরত তাদের কর্মকর্তাদের যে কোনো ধরনের অস্বাভাবিক শব্দ শোনা বা দৃষ্টি শক্তির ক্ষেত্রে যে কোনো ধরনের সমস্যায় সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছে।

সম্প্রতি এক কর্মকর্তা রহস্যজনক উপসর্গের বিষয়ে অভিযোগ করার পরই এ বিষয়টি নিয়ে সতর্ক করেছে যুক্তরাষ্ট্র। এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, ওই কর্মকর্তা খুব সূক্ষ্ম এবং অস্পষ্ট কিন্তু খুব অস্বাভাবিক শব্দ এবং চাপ অনুভব করেছেন। মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও বলেছেন, কিউবায় মার্কিন কূটনীতিককে ওপর যেভাবে সনিক অ্যাটাক চালানো হয়েছে চীনা ওই কর্মকর্তার অনুভূতিও একই রকম।

দুই দেশের ঘটনার মধ্যে ‘মেডিক্যালি সামঞ্জস্য’ আছে বলে উল্লেখ করেছেন তিনি। চীনের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, তারা খুবই গুরুত্বের সাথে এ বিষয়টি তদন্ত করছে। সাম্প্রতিক সময়ে বাণিজ্য যুদ্ধের মুখে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র এবং চীন। এর মধ্যেই এ ধরনের ঘটনা দু’দেশের সম্পর্কের মধ্যে আরও অস্থিরতা তৈরি করতে পারে। মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর বলছে, তারা এই ঘটনাকে খুবই গুরুত্বের সঙ্গে নিচ্ছে। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্র এই ঘটনার জন্য সরাসরি চীনকেই দোষারোপ করছে না।

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *