ড্রতে শেষ হলো উত্তেজনাকর এল ক্লাসিকো

প্রথম সকাল ডটকম ডেস্ক: কী ছিল না ২৩৮তম এল ক্লাসিকোতে? দুর্দান্ত গোল, অসাধারণ পাসিং, স্পোর্টসম্যানশিপ, হলুদ কার্ড, লাল কার্ড পাশাপাশি দু’দলের খেলোয়াড়দের মারামারি!

এমন উত্তেজনাকর ম্যাচে রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে ২-১ গোলে এগিয়ে থেকেই শেষ পর্যন্ত ২-২ গোল ড্র করে মাঠ ছাড়ে বার্সেলোনা। আর এ ড্রয়ের ফলে লা লিগায় অপরাজিত থাকার রেকর্ডকে আরও সমুন্নত করলো দশজনের বার্সেলোনা।

ম্যাচের শুরু থেকে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়তে থাকে দু’দলের খেলোয়াড়দের মাঝে। ম্যাচের ৫ম মিনিটেই এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ পেয়েছিল বার্সেলোনা কিন্তু মেসির বাড়ানো বলে সুয়ারেজ শট নিলে সেটি ব্লক করেন রিয়াল ডিফেন্ডার ভারান।

তবে ১১ মিনিটে ম্যাচের প্রথম গোলটি করেন লুইস সুয়ারেজ। দুর্দান্ত এক কাউন্টার অ্যাটাক থেকে ডান পাশ দিয়ে সার্জি রবের্তোর বাড়ানো ক্রসে ভলি থেকে অসাধারণ এক গোল করে দলকে ১-০ গোলে এগিয়ে দেন উরুগুইয়ানের এ স্ট্রাইকার। কিন্তু এ গোলের আনন্দের রেশ বেশিক্ষণ টিকেনি বার্সা শিবিরে।

১৫ মিনিটে কাউন্টার অ্যাটাক থেকে বেনজেমার হেডে বাড়ানো বলে গোল করেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। ২০ মিনিটে মেসির ক্রস থেকে অল্পের জন্য গোল করতে ব্যর্থ হন জর্দি আলবা। ২৮ মিনিটে গোলের সব থেকে সহজ সুযোগটিও মিস করেন রোনালদো। টের স্টেগানকে একা পেয়েও গোল করতে পারেননি তিনি।

খেলার ৩২ মিনিয়ে সুয়ারেজকে ফাউল করে হলুদ কার্ড দেখেন ভারান। উত্তেজনাকর এ খেলায় ৩৩ মিনিটে ম্যাচে বাদানুবাদে জড়িয়ে পড়েন আলবা ও মদ্রিচ। রেফারি দু’জনকেই হলুদ কার্ড দেখান। তবে ম্যাচের আসল উত্তেজনার শুরু তখন থেকেই। এরপর ৩৭ মিনিটে গোলের সহজ সুযোগ মিস করেন উমতিতি।

৪৩ মিনিটে নাভাসকে একা পেয়েও গোল করতে ব্যর্থ হন মেসি। ম্যাচের ৪৪ মিনিটে সুয়ারেজের সাথে হাতাহাতিতে জড়ান রামোস। ফলে রেফারি দু’জনকেই হলুদ কার্ড দিয়ে সাবধান করে দেন। এছাড়া প্রথমার্ধের অতিরিক্ত সময়ে রামোসকে ফাউল করেন মেসি। তার কপালেও জুটে হলুদ কার্ড। তবে এখানেই শেষ নয়।

প্রথামার্ধের শেষ মিনিটে মার্সেলোকে অনিচ্ছাকৃত ঘুষি মেরে বসেন সার্জি রবের্তো। রেফারিও সাথে সাথে লাল কার্ড দেন রবের্তোকে। বিরতি থেকে রোনালদোকে ছাড়াই মাঠে নামে রিয়াল। ইনজুরির কারণে তাকে আর মাঠে নামানোর ঝুঁকি নেননি রিয়াল কোচ জিদান। ফলে দশজনের দল নিয়েই ম্যাচের ৫৩ মিনিটে গোল করে দলকে ২-১ গোলে এগিয়ে দেন বার্সেলোনার প্রাণভোমড়া লিওনেল মেসি।

লা লিগায় এটি তার ৩৩তম এবং এল ক্লাসিকোতে ২৬তম গোল। খেলার ৭১ মিনিটে আবারও গোলের সুযোগ পান মেসি। কিন্তু নাভাসকে একা পেয়েও গোল করতে পারেননি মেসি। সেই মিসের খেসারত দিতে হয় বার্সাকে ৭৩ মিনিটে।

আসেনসিওর কাছ থেকে বল পেয়ে ডি বক্সের বাইরে থেকে বাঁ পায়ের দুর্দান্ত শটে রিয়ালকে সমতায় ফেরান গ্যারাথ বেল। ম্যাচের ৮৪ মিনিটে আবারও মেসির সামনে বাধা হয়ে দাঁড়ান নাভাস। শেষ দিকে দু’দল আক্রমণাত্মক খেলা খেললেও কোনো দলই আর গোলের দেখা পায়নি। ফলে ২-২ গোলের অমীমাংসিত থেকেই শেষ হয় উত্তেজনাকর এল ক্লাসিকো।

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *