‘অভিনেত্রী হতে চাইলে যৌন সম্পর্ক করতে হবে’

প্রথম সকাল ডটকম ডেস্ক: ‘সে ব্যক্তি যেখানে চেয়েছে আমার শরীরের সেখানেই হাত দিয়েছে। সে যেখানেই চেয়েছে আমার শরীরের সেখানেই চুমু খেয়েছে।

সে আমার জামার ভেতরে হাত ঢুকিয়ে দিয়েছিল। আমি হতভম্ব হয়ে গিয়েছিলাম। আমি তাকে থামিয়ে দিয়েছিলাম। তখন সে বললো, তোমার মনোভাব যদি এ রকম হয়, তাহলে তুমি এখানকার জন্য উপযুক্ত না।

বলিউডে নায়িকা হওয়ার আশায় অভিনয় করতে এসেই এ পরিস্থিতির মুখোমুখি হয়েছিলেন ভারতীয় এক তরুণী। নায়িকা হওয়ার ইচ্ছা নিয়ে ভারতের একটি ছোট গ্রাম থেকে শহরে আসে মেয়েটি।

‘অভিনেত্রী হতে চাইলে তোমাকে যৌন সম্পর্ক করতে হবে’- নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সে অভিনেত্রী বলেন। সিনেমার শিল্পী নিয়োগ করে এমন একজন এজেন্ট তাকে যৌন নিপীড়ন করেছে। ভারতে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন অভিনেত্রী ঊষা জাদভ। সিনেমার সাথে সংশ্লিষ্ট এক ব্যক্তি তাকে সরাসরি যৌন সম্পর্কের প্রস্তাব দিয়েছিলেন।

‘তুমি যদি এ ভূমিকা পেতে চাও তাহলে আমার সাথে শুতে হবে। আমাকে এমন কথা বলা হয়েছিল’- ঊষা জাদভ বিবিসিকে বলেন। বলিউডে নায়িকাদের যৌন হয়রানির বিষয়ে এরই মধ্যে কিছু নায়িকা কথা বলেছেন। কিন্তু বিষয়টি নিয়ে আরো অনেকের তিক্ত অভিজ্ঞতা থাকলেও তারা মুখ খুলতে চান না।

এর কারণ কী? কেন তারা এসব মুখ বুজে সহ্য করছেন? নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সে অভিনেত্রীর কাছে বিবিসির সাংবাদিক জানতে চেয়েছিলেন, এ ধরনের ঘটনা তিনি কেন প্রকাশ করলেন না? এমন প্রশ্নের জবাবে অভিনেত্রী বলেন, ‘কেউ যদি এসব কথা বলে তাহলে সবাই মেয়েটিকে দোষ দিয়ে বলবে মেয়েটি প্রচারণা চায়।

বলবে মেয়েটির কোন মেধা নেই এবং সে টাকা উপার্জন করতে চায়। বলিউডে যৌন হয়রানির বিরুদ্ধে বেশ সোচ্চার রাধিকা আপ্তে। তিনি বলেন, ‘অনেকেই ভয় পায়। কারণ এখানে কিছু ব্যক্তি এতো ক্ষমতাধর যে তাদের সৃষ্টিকর্তার মতো মনে করা হয়। অনেকে মনে করেন, যৌন হয়রানির বিষয়গুলো নিয়ে প্রকাশ্যে কথা বললে তাদের ক্যারিয়ার নষ্ট হবে।

রাধিকা আপ্তে মনে করেন, হলিউডে যৌন হয়রানির বিরুদ্ধে সেখানকার নারী-পুরুষ সবাই যেভাবে একত্রিত হয়েছে সেটি বলিউডেও দরকার। বলিউড অভিনেতা ফারহান খান বলেন, ‘এটা খুবই দুর্ভাগ্যজনক বাস্তবতা। আশা করি এটার পরিবর্তন হবে।’ খান মনে করেন, বলিউডে যৌন হয়রানির বিরুদ্ধে মেয়েরা যেভাবে মুখ খুলেছে তাদের অপরাধীরা লজ্জার মধ্যে পড়েছে। এতে করে অনেকের মাঝে ভয় তৈরি হবে বলে তার ধারণা। বিবিসি বাংলা।

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *