লালমনিরহাটে জঙ্গি সন্দেহে গ্রেফতার বেরোবি ছাত্রী রিমান্ডে

প্রথম সকাল ডটকম (লালমনিরহাট): লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় নারী জঙ্গি সন্দেহে গ্রেফতার বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সাদিয়া আফরোজ নীনার দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

মঙ্গলবার বিকেলে লালমনিরহাট সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক আফাজ উদ্দিন এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন। গত বুধবার রাতে হাতীবান্ধা উপজেলার দক্ষিণ ধুবনী গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে সাদিয়াকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

শিক্ষার্থী সাদিয়া আফরোজ নীনার বিরুদ্ধে হাতীবান্ধা থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা দায়েরের পর আদালতে সোপর্দ করা হয়। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আদালতের কাছে সাদিয়ার ৫ দিন রিমান্ড আবেদন করেন।

আবেদনের প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার আদালত দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে বলে নিশ্চিত করেছেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা লালমনিরহাট ডিবি পুলিশের উপ-পরিদর্শক সিদ্দিকুল হক। এদিকে, সাদিয়াকে গ্রেফতারের একদিন পর বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তাকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করেছে।

জঙ্গি সন্দেহে গ্রেফতার বেরোবির হিসাব বিজ্ঞান শাখার ৪র্থ বর্ষের শিক্ষার্থী সাদিয়া আফরোজ নীনার পরিবার দাবি করেছে, কোনো প্রকার জঙ্গি সম্পৃক্ততা নেই সাদিয়ার। গত বুধবার রাতে হঠাৎ বাড়িতে পুলিশ এসে সাদিয়াকে ধরে নিয়ে যায়।

এরপর তাকে নিজ বাড়িতে গোপন বৈঠকসহ জিএমবি সদস্য বানিয়ে বিভিন্ন অ্যাপস পাওয়া গেছে বলে অভিযোগ তুলে মামলা করে পুলিশ। আর এসবের পেছনে অন্য কারও হাত রয়েছে। এ বিষয়ে মামলার বাদী হাতীবান্ধা থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ বলেন, সাদিয়া ওই বাড়িতে ১০/১২ জন জেএমবি সদস্যের সঙ্গে বৈঠক করছিল। পুলিশি অভিযানের সময় তারা পালিয়ে যায়।

This website uses cookies.