সাম্পাওলি আমার সঙ্গে প্রতারণা করেছে : ম্যারাডোনা

প্রথম সকাল ডটকম ডেস্ক: আর্জেন্টিনা কোচ হোর্হে সাম্পাওলির সঙ্গে যেন সাপে-নেউলে সম্পর্ক কিংবদন্তি ফুটবলার দিয়েগো ম্যারাডোনার। আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের কোচ হতে পারেননি বলে ম্যারাডোনা সমস্ত দোষ চাপিয়ে দেন সাম্পাওলির ওপর।

এডগার্ডো বাউজাকে বিদায় করে দেয়ার পর দীর্ঘদিন জাতীয় দলের কোচহীন ছিলেন লিওনেল মেসিরা। এ সময় বেশ কয়েকবারই আলোচনায় এসেছিলেন দিয়েগো ম্যারাডোনা। তিনি নিজেও পূনরায় আর্জেন্টিনার কোচ হওয়ার ইচ্ছার কথা প্রকাশ করেন।

কিন্তু সেভিয়ার সাবেক কোচ হোর্হে সাম্পাওলি ম্যারাডোনার সব স্বপ্ন চূর্ণ করে দেন। তিনিই হয়ে যান মেসিদের কোচ এবং তার অধীনেই শেষ মুহূর্তে এসে বিশ্বকাপের টিকিট কেটে নিতে সমর্থ হয় আর্জেন্টিনা।

তবে, প্রীতি ম্যাচে স্পেনের কাছে ৬-১ গোলের বিশাল ব্যবধানে পরাজয়ের পর দীর্ঘদিনের অভ্যাসমতো আবারও সাম্পাওলির সমালোচনায় মুখর হয়ে ওঠেন ম্যারাডানা। শুধু সমালোচনা করাই নয়, তিনি সাম্পাওলিকে একজন ‘প্রতারক’ হিসেবেও চিহ্নিত করলেন। একই সঙ্গে জানিয়ে দিলেন, কোচের দায়িত্বে তিনি সাম্পাওলির ওপর কিভাবে আস্থা রাখতে পারেন না- এ বিষয়টি।

সিএনএনের সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে ম্যারাডোনা সাম্পাওলির সমালোচনা করে বলেন, ‘অনেকগুলো সহযোগি অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে সে (সাম্পাওলি) আর্জেন্টিনা জাতীয় দলে প্রবেশ করেছে। এবং দলের সদস্যদের এটা বোঝানোর চেষ্টা করছে যে, বলটা হলো গোল। সাম্পাওলির ফুটবলজ্ঞান নিয়ে প্রশ্ন তুলে ম্যারাডোনা বলেন, ‘এসবই আমাকে দেখিয়ে দেয় যে, তিনি কতটা ভুল।

আমরা যারা ফুটবল থেকে (কোচিংয়ে) এসেছি, তাদের কখনও কেউ সাম্পাওলিকে একটি গোলও করতে দেখিনি। কিংবা কেউ শোনেনি যে, সাম্পাওলি কখনো একটিও গোল করতে পেরেছেন। তাদের নিজেদের প্রতি সম্মান দেখানো সাম্পাওলির কর্তব্য বলেও মন্তব্য করেন ম্যারাডোনা। তিনি বলেন, ‘আমরা যা রেখে এসেছি (ফুটবল ক্যারিয়ারে) এবং আর্জেন্টিনা জাতীয় ফুটবল দলের হয়ে যা করে এসেছি, তার প্রতি সাম্পাওলির সর্বোচ্চ সম্মান দেখানো উচিৎ।

এরপরই ম্যারাডোনা মন্তব্য করেন, ‘সাম্পাওলি আমার সঙ্গে প্রতারণা করেছে।’ কিভাবে? সেটাও জানালেন ম্যারাডোনা, ‘যখন আর্জেন্টিনা ডেভিস কাপ জিতেছিল, সে আমাকে বলেছিল যে, আমাকে সেভিলেতে সম্মান জানাতে চায়। আমি তখন তাকে বলেছিলাম, ওই সময় তার সঙ্গে ফুটবল নিয়ে কথা বলতে চাই।

এরপরের ঘটনা সম্পর্কে ৮৬’র বিশ্বকাপজয়ী তারকা বলেন, ‘আমি তো তাকে হ্যাঁ বলেছিলাম; কিন্তু আপনি দেখবেন, তার মধ্যে অন্য চিন্তা কাজ করছে। সে যেন আমাকে অন্যত্র ছুঁড়ে ফেলেছে। সে আমার সঙ্গে কথা বলতে রাজি নয়। তার ইচ্ছা শুধু, কিভাবে জাতীয় দলের আরও কাছাকাছি যাওয়া যায়।

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *