কনক চাঁপার নামে মধুপুরে গ্রন্থাগার প্রতিষ্ঠিত

প্রথম সকাল ডটকম: বাংলাদেশের কণ্ঠশিল্পী কনক চাঁপা। তার হৃদয় ছোঁয়া গান সুদীর্ঘকাল ধরেই সবার প্রাণে কাঁপন তুলেছেন। এবার জনপ্রিয় এ কণ্ঠশিল্পীর প্রতি শ্রদ্ধা ও ভালোবাসার নিদর্শনস্বরূপ তার নামে একটি স্কুলের গ্রন্হাগারের নাম রাখা হয়েছে।

টাঙ্গাইলের মধুপুর উপজেলার নতুন ইউনিয়ন বেরিবাইগ’র দক্ষিণ জাঙ্গালিয়া গ্রামের ‘আলোর ভুবন আদর্শ বিদ্যালয়’-এ প্রতিষ্ঠা করা হয় ‘কণ্ঠশিল্পী কনক চাঁপা গ্রন্হাগার’। এটা শিল্পীর প্রতি ভালোবাসার সর্বোচ্চ নিদর্শন।

বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা জাহাঙ্গীর কবির আলো উদ্যোগী হয়ে কনক চাঁপার নামে এই গ্রন্হাগার প্রতিষ্ঠিত করেন। কনকচাঁপার ‘আমাদের খেলাঘর ইসকুল’-এরই একজন শিক্ষার্থী আলো।

প্রিয় এ শিল্পীকে তিনি মা বলেই ডাকেন। তার প্রতি শ্রদ্ধা ও ভালোবাসার নিদর্শন স্বরূপ আলো এই গ্রন্হাগারটি প্রতিষ্ঠিত করেন। তবে শিল্পীর নামে গ্রন্হাগার প্রতিষ্ঠার বিষয়টি আলো জানান দিয়েছেন সম্প্রতি। এ বিষয়ে কনক চাঁপা বলেন, ‘আমি কণ্ঠশ্রমিক, গান গাই, গান গেয়ে দর্শকের ভালোবাসা পাই। এটা খুব স্বাভাবিক একটি বিষয়।

কিন্তু আমার নামে কোথাও গ্রন্হাগার প্রতিষ্ঠিত করার বিষয়টি আমাকে সত্যিই অনেক অবাক করেছে। এই ভালোবাসা আসলে কোনো কিছুর বিনিময়ে পাওয়া যায় না। আমি কৃতজ্ঞ আলো’সহ যারা এর নেপথ্যে কাজ করেছেন সবার প্রতি।

তিনি আরও বলেন, ‘আমার নামে দেশের যে প্রান্তেই হোক একটি গ্রন্হাগার আছে, এটা যখনই ভাবি তখনই আমার মনে অন্যরকম ভালোলাগা ছুঁয়ে যায়। ইচ্ছে আছে সময় করে একদিন সেই গ্রন্হাগারটি দেখতে যাবার। আর বিশেষত বলতে চাই, আমাকে যারা বিভিন্ন সময়ে বই দেয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেন, তারা চাইলেই এ গ্রন্হাগারের জন্য বই দিতে পারেন। আমি চাই সেই এলাকার মানুষ এ বই পড়ে আরো আলোকিত হোক।

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *