রাবিতে বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী নাট্যোৎসব শুরু পহেলা এপ্রিল

মো: উমর ফারুক রাবি): ‘মিলি মৈত্রীবন্ধনে গড়ি সংস্কৃতির সেতু’ স্লোগানকে সামনে রেখে ১লা এপ্রিল থেকে শুরু হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী আন্তর্জাতিক নাট্যোৎসব সপ্তাহ ২০১৮।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে আগামী ১ এপ্রিল নাট্যোৎসবটি শুরু হবে। চলবে ৭ এপ্রিল পর্যন্ত। বিশ্ববিদ্যালয় নাট্যকলা বিভাগ আয়োজনে ও বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাই কমিশনারের সহযোগিতায় নাট্য উৎসব পরিচালিত হবে।

মঙ্গলবার দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেন বিশ^বিদ্যালয় নাট্যকলা বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক আতাউর রহমান রাজু।

তিনি জানান, উৎসবের প্রথম দিন সন্ধ্যা ৭ টায় বিশ্ববিদ্যালয় কাজী নজরুল ইসলাম মিলনায়তনে নাট্যকার শ্রুতি বন্দোপাধ্যায়ের নির্দেশিত ‘জয় জয় ভানু জয়দেব’ নাটক প্রদর্শনের মাধ্যমে উৎসবের পর্দা উঠবে।

ভারত ও বাংলাদেশের নাট্যকারদের নির্দেশনায় মোট ১৩ টি নাটক প্রদর্শিত হবে এই নাট্যোৎসবে। ওইদিন বিকেল ৫ টায় নাট্যোৎসবের উদ্বোধন করবেন বিশ^বিদ্যালয় উপাচার্য অধ্যাপক ড. আব্দুস সোবহান। এতে প্রধান অথিথি হিসেবে থাকবেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতের হাই কমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রীংলা।

অন্যান্যদের মধ্যে বিশ^বিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. আনন্দ কুমার সাহা, বিশিষ্ট কথাসাহিত্যক হাসান আজিজুল হক, শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী, নন্দিত নাট্যকার মলয় কুমার ভৌমিক প্রমুখ। বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, প্রথম দিন ব্যতিত প্রতিদিন দুইটি নাটক মঞ্চায়িত হবে। প্রতিদিন বিকেল ৪ টায় টিএসসিসিতে এবং ৬.৪৫ মিনিটে কাজী নজরুল ইসলাম মিলনায়তনে নাটকের মঞ্চায়ন শুরু হবে।

২য় দিন ২রা এপ্রিল শহীদ সুখরঞ্জন সমাদ্দার ছাত্র শিক্ষক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রে নাট্যকার সামিনা লুৎফা নিত্রার নাটকও মোহাম্মদ আলী হায়দারের নির্দেশনায় ‘খনা’ এবং কাজী নজরুল ইসলাম মিলনায়তনে সৈয়দ শামসুল হকের নাটক ও মীর মেহবুব আলমের নির্দেশনায় ‘গণনায়ক’,।

৩ এপ্রিল ড. রশীদ হারুনের নাটক ও নির্দেশনায় ‘পুতুলনাট্য’, আমিনুর রহমান মুকুলের নাটকে মোসলেম উদ্দিন শিকদার নির্দেশিত ‘সাম্পাননাইয়া’। ৪ঠা এপ্রিল শাকুর মজিদের নাটক ও সুদ্বীপ চক্রবর্তীর নির্দেশনায় ‘মহাজনের নাও’, মলয় ভৌমিকের নির্দেশনায় অনুশীলন নাট্যদলের ‘ম্যাওসংকেত্তন’। ৫ এপ্রিল শ্রী স্বপন কুমারের নাটক ও অভি চক্রবর্তীর নির্দেশনায় ‘রাতবিরেতের রক্তপিচাশ’, সাইমন জাকারিয়ার নাটকে নাসিরউদ্দিন ইউসুফ নির্দেশিত ‘বিনোদিনী’।

৬ এপ্রিল তারিক আনাম খানের রুপান্তরিত ও লিয়াকত আলী লাকীর নির্দেশনায় ‘কঞ্জুস’ এবং আবুল কালাম আজানের নাটক ও নির্দেশনায় ‘সার্কাস সার্কাস’। শেষ দিন ৭ এপ্রিল মাইকেল মধুসূদন দত্তের নাটক ও শুভাশিস সিনহার নির্দেশনায় ‘কহে বীরঙ্গনা’ ও ফাল্গুনী চট্যোপাধ্যায়ের নির্দেশিত নাটক ‘মিসফিট’।

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *