হঠাৎ পানের দাম বৃদ্ধিতে দিশেহারা ক্রেতা ও বিক্রেতারা

মোঃ আরিফুজ্জামান আরিফ (ঠাকুরগাঁও): ঠাকুরগাঁও সদরের বিভিন্ন  বাজারে পানের অস্বাভাবিক বাজারমূল্য বৃদ্ধি পেয়েছে। হঠাৎ পানের দাম বৃদ্ধিতে দিশেহারা ক্রেতা ও বিক্রেতারা।

 যেখানে কিছুদিন পূর্বে প্রতি বিড়া পানের বাজার মূল্য ৭০ থেকে ৮০ টাকা এবং ভালো পান সর্বোচ্চ ১০০ টাকা বিড়া ছিল। সেখানে বর্তমান প্রতি বিড়া পানের বাজারমূল্য ৩৫০ থেকে ৪০০ টাকা।

সরেজমিনে গিয়ে  (১৩ ফেব্রুয়ারী) বিভিন্ন বাজারের পাশাপাশি ফারাবাড়ী বাজারের পান ব্যবসায়ী রফিকুল  ইসলাম এর সাথে কথা হলে তিনি জানান, অস্বাভাবিক দাম বৃদ্ধির কারণ হচ্ছে এবার ঘনকুয়াশায় অধিকাংশ কৃষকের পানের বোরোজ নষ্ট হয়ে গেছে।

অনেকের অঙ্কুরেই পান পাতা ঝরে পড়েছে। ফলে উৎপাদন ঘাটতি মারাত্মক আকার ধারণ করেছে। পান সঙ্কটের কারনেই বাজারে পানের দাম বেড়ে দুই থেকে তিন গুণ বৃদ্ধি পায়। এ দাম প্রায় আরো দু-তিন মাস থাকতে পারে বলেও তিনি জানান। বিভিন্ন খিলি পানের দোকানে গিয়ে দেখা যায়, প্রতি পিচ খিলি পান আগে ৫ টাকায় বিক্রি হতো সেখানে এখন প্রতি খিলি পান ৬-৭ টাকা করে বিক্রি করছে।

এসময় এক পাইকারি পান বিক্রেতার কাছে পানের দাম বৃদ্ধির কারণ হিসেবে জানায় যে, বাজারে চাহিদা তুলনায় পানের সরবরাহ আছে মোটামুটি। তবে বেশি করে পান আনতে ভয় পাচ্ছি কারন, পান যদি চাহিদা মত বিক্রি না হয় তাহলে পানে পঁচন ধরে তাই অনেক লোকসান গুনতে হয়  এতে বিক্রেতারা একটু দিশেহারার মত আছে এবং বেশি টাকায় পান কেনা থাকায় প্রতি বিড়া পান ৪০০ টাকা, প্রতি পোয়া ১০০ টাকা দরে বিক্রি করতে হচ্ছে। অপরদিকে ক্রেতারা জানায় পানের দাম হঠাৎ করে এতোটা আকাশচুম্বী বৃদ্ধি পাবে কল্পনাও করতে পারি নাই।

This website uses cookies.