“উদার আকাশ” প্রকাশনের গ্রন্থ প্রকাশ ও ভারত বাংলাদেশ মৈত্রীর বার্তা নিয়ে সেমিনার দাগ কাটল

প্রথম সকাল ডটকম ডেস্ক: গত ৮ ফেব্রুয়ারি কোলকাতা ব‌ইমেলায় প্রেস কর্ণারে দুপর ২টোয় “উদার আকাশ” প্রকাশনের ৬টি গ্রন্থ প্রকাশ অনুষ্ঠান হয়ে গেল।

লেখক সামশুল আলম-এর লেখা “জবালা পুত্র” (উপন্যাস) এবং “মাটির সিতান মাটির পৈথান” (গল্পগ্রন্থ)। মো: আবেদ আলি’র লেখা “অন্য গাঁয়ের আখ্যান” (গল্পগ্রন্থ)। লেখক গীতা সরকার প্রামাণিক-এর লেখা “নীহারিকার সংগ্রাম” (উপন্যাস)।

লেখক মইনুল হাসান-এর লেখা “ইসলামী আইন : বিবাহ তালাক উত্তরাধিকার” (প্রবন্ধ)। অধ্যাপিকা ড. আমিনা খাতুন-এর সম্পাদনা “প্রবন্ধ সংগ্রহ : ভাবনার নানা দিক” (প্রবন্ধ)। এছাড়াও ফারুক আহমেদ সম্পাদিত “উদার আকাশ” পত্রিকার বইমেলা বিশেষ সংখ্যা ভারত ও বাংলাদেশের লেখকরাই কলম ধরেছেন এই সংখ্যায়।

সব গ্রন্থ ও পত্রিকা আনুষ্ঠানিক প্রকাশ ঘটল। উদ্বোধন করলেন, বাংলা সাহিত্যে প্রখ্যাত সাহিত্যিক ড. হুমায়ুন কবীর, বাংলা সাহিত্যের বিশিষ্ট লেখিকা সঙ্গীতা বন্দ‍্যোপাধ‍্যায়,  বাংলাদেশের খ‍্যাতিমান সাহিত্যিক সৈয়দ মাজহারুল পারভেজ, প্রক্তন আইপিএস মহ: নিজাম শামীম। এছাড়াও সাহিত্য ও সঙ্গীত জগতের বিশিষ্টগুণীজনের অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।

বিশেষ করে নূপুর কাজী, মধুশ্রী হাতিয়াল প্রমুখ। আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলায় “উদার আকাশ” প্রকশনের গ্রন্থ প্রকাশ ও ভারত বাংলাদেশ মৈত্রীর বার্তা নিয়ে এক সেমিনারেরও আয়োজন করা হয়েছিল। বিষয় “বাংলা ভাষা ও সংস্কৃতি উন্নয়নে আমাদের দায়িত্ব ও কর্তব্য” বইমেলার মিডিয়া সেন্টারে বৃহস্পতিবার এই বিষয় নিয়ে বললেন দুই দেশের কবি ও সাহিত্যরথীরা।

আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলায় “মিডিয়া সেন্টারে” উদার আকাশ প্রকাশনের ছয়টি গ্রন্থের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হল বৃহস্পতিবার, ৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ দুপুর ২ টোয়। আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলার মাঠে মিডিয়া সেন্টারে “উদার আকাশ” প্রকাশনের ছয়টি গ্রন্থের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করলেন প্রখ্যাত সাহিত্যিক সঙ্গীতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও ড. হুমায়ুন কবীর, প্রাক্তন আইপিএস মো: নিজাম শামীম, সংগীত শিল্পী নূপুর কাজী, মধুশ্রী হাতিয়াল, সমাজকর্মী ডা: নাবিলা খান।

বাংলাদেশ লেখক পরিষদের সভাপতি বহুমাত্রিক লেখক সৈয়দ মাজহারুল পারভেজ-এর সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন পরিষদের ১৫ জন সিনিয়র সদস্য। বই প্রকাশ অনুষ্ঠানে শিক্ষা প্রসারে বিশেষ অবদানের জন্য ড. সেখ আবদুল মুজিদ সাহেবকে উদার আকাশের পক্ষ থেকে বিশেষ সম্মাননা প্রদান করা হয়। ‘নীহারিকার সংগ্রাম।’ এক সংগ্রামী নারীর জীবনগাথা।

এই উপন্যাসটি লিখেছেন গীতা সরকার প্রামাণিক। গীতা সরকার প্রামাণিকের লেখা এটা প্রথম উপন্যাস। তালাকের প্রয়োগ-পদ্ধতি সম্পর্কে প্রত্যক্ষ জ্ঞানার্জন প্রয়োজন, এটা অস্বীকার করা যায় না। এই কাজে এগিয়ে এসেছেন স্বনামধন্য প্রাবন্ধিক মইনুল হাসান। ইসলামের আইন বিষয়ে সাধারণ মানুষের সীমিত জ্ঞানকে সঠিক ভাবে আলোকিত করার জন্য তাঁর মতো মানুষের এই প্রয়াস সর্বস্তরের মানুষের কদর লাভ করবে আশা করা যায়।

লেখক দীর্ঘদিন ভারতের আইনসভার সদস্য, জন-আন্দোলনের সঙ্গে  ওতপ্রোতভাবে জড়িত থাকার কারণে এবং নানান পত্র-পত্রিকাগুলিতে নিয়মিত লেখার জন্য ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতায় সমৃদ্ধ। ফলে তাঁর এই বই সেই সমৃদ্ধতার সাক্ষ্য  বহন করছে। সুপ্রিম কোর্টের কয়েকটি ঐতিহাসিক রায়ের সংক্ষিপ্তসার সংযোজিত হয়েছে এই গ্রন্থে।

গ্রন্থের নাম ‘ইসলামী আইন বিবাহ তালাক উত্তরাধিকার’ এই গ্রন্থটি সহ ‘উদার আকাশ’ পত্রিকা ও আরও ৪ খানা বই প্রকাশ হল বইমেলায়। প্রথমটি সামশুল আলম রচিত ‘মাটির শিতান মাটির পৈথান’। এটি নয়টি বিভিন্ন আঙ্গিকের ছোটোগল্পের সংকলন। দ্বিতীয়টি সামশুল আলম রচিত একটি উপন্যাস ‘জবালা পুত্র’।

এক দৃঢ়চেতা নারীর এক আত্মমগ্ন শিল্পীর সাধন-সঙ্গিনী হয়ে ওঠার কাহিনি। তৃতীয়টি একটি প্রবন্ধ-গ্রন্থ। নাম ‘প্রবন্ধ সংগ্রহ ভাবনার নানা দিক’। সম্পাদনা ড. আমিনা খাতুন। সাধারণ থেকে প্রবন্ধের সিরিয়াস পাঠক সকলেরই ভালো লাগবে এর বিষয় নির্বাচন ও উপস্থাপনার নতুনত্ব। চতুর্থটি একটি গল্পগ্রন্থ। ‘অন্য গাঁয়ের আখ্যান’ লেখক মোঃ আবেদ আলি।

ভিন্ন এক আঙ্গিকে অদ্ভুত মুন্সিয়ানায় একেবারে কাছে থেকে নিজের জীবন দিয়ে দেখা কতগুলি সত্যিকার মানুষের চরিত্র শিল্পীর তুলিতে এঁকেছেন লেখক। প্রচ্ছদ শিল্পী সারফুদ্দিন আহমেদ বেশ ভাল প্রচ্ছদ এঁকেছেন। উল্লেখ্য, “উদার আকাশ” পত্রিকাটির বইমেলা সংখ্যায় একগুচ্ছ গবেষণামূলক প্রবন্ধ- নিবন্ধের তালিকা দেখে উৎসাহী হতেই হবে পাঠকদের।

“উদার আকাশ” পত্রিকা ও প্রকাশনের গ্রন্থগুলির প্রচ্ছদ, বাঁধাই ও ছাপা বেশ ভাল। ইতিমধ্যে “উদার আকাশ” প্রকাশন জগতে একটা পরিচিত নাম হয়ে উঠেছে। কিছু ভাল গ্রন্থ প্রকাশের জন্য “উদার আকাশ” প্রকাশনের প্রয়াস দ্রুত পাঠক মনে দাগ কাটছে। সাহিত্য সেবা দিয়ে মনের আকাশ সমৃদ্ধ করতে ‘উদার আকাশ’ নিয়মিত কাজ করছে বলে লেখক ও সাহিত্যিকরা তাঁদের বক্তব্যে তুলে ধরেন।

 ‘উদার আকাশ’ প্রকাশনের কিছু  মূল্যবান গ্রন্থ যা আগেই প্রকাশিত হয়েছে তা পাঠকদেরকে গভীর ভাবে প্রাণিত করেছে বলে জানান, উদার আকাশ প্রকাশনের ও পত্রিকার সম্পাদক ফারুক আহমেদ।

আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলাতে লিটল ম্যাগাজিন প্যাভিলিয়নে ১৭৫ নম্বর টেবিলটিই হল ‘উদার আকাশ’-এর। ‘উদার আকাশ’ প্রকাশনের বই, ‘উদার আকাশ’ পত্রিকার বিশেষ সংখ্যা পাওয়া যাচ্ছে। উদার আকাশ প্রকাশনের গ্রন্থ প্রকাশ অনুষ্ঠান ছিল চোখে দেখার মতো। কবিতা পাঠ করেন কবি মুকুল চক্রবর্তী, তাপস সাহা, শীলা বিশ্বাস, অরূপ পান্তী ও ভারতী বন্দ্যোপাধ্যায়।

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *