গাজীপুরের সুন্দরী শেখ লায়লার প্রতারনায় সর্বশান্ত স্বামী আব্দুস সাত্তার : থানায় সাধারন ডায়েরী

প্রথম সকাল ডটকম ডেস্ক: গাজীপুর মহানগরের হটাত গজিয়ে উঠা যুব মহিলা লীগের নামধারী নেত্রী সেক্স কুইন শেখ লায়লার ফাঁদে পড়ে ঢাকা তথা গাজীপুরের বহু যুবক আজ সর্বস্বান্ত হয়ে পড়েছে।তার চাল চলন দেখে অনেকের মনে জেগেছে সন্দেহ আর এলাকা বাসীর এই সকল সন্দেহের ঘোর কাটার জন্য দৈনিক ভোরের ধ্বনি ও সময়ের কণ্ঠ পত্রিকার একদল টিম তার বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে বেরিয়ে এসেছে সেক্স কুইন শেখ লায়লার ৬ মাসের রাজনৈতিক মাঠের চাঞ্চল্যকর তথ্য।

অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে ২০১৪ সালে ইসলামী শরিয়া মোতাবেক ঝিনাইদাহ জেলার সদর উপজেলার লক্ষ্মীপুর গ্রামের ওয়াজেদ আলীর ছেলে দুবাই প্রবাসী মোঃ আব্দুস সাত্তার তালেবের সহিত গাজীপুর মহানগরের দক্ষিন খাইলকুর এলাকার আলম শেখের স্বামী পরিত্যক্তা মেয়ে রুনা লায়লা ওরফে আজকের শেখ লায়লার সাথে ইসলামী শরিয়াহ মোতাবেক বিয়ের কাজ সম্পন্ন হয়। বিয়ের পর দুবাই প্রবাসী স্বামী শেখ লায়লাকে দুবাই নিয়ে সেখানে বসবাস শুরু করে। সেখানে গিয়ে শেখ লায়লার মোবাইলে ফেসবুক ও ইমোর মাধ্যমে বিভিন্ন জায়গায় আব্দুস সাত্তার তালেবের অজান্তে শুরু করে জঘন্যতম রঙ্গলীলা।

বিষয়টি স্বামী জানতে পারার পর শেখ লায়লাকে নিয়ে কয়েকমাসের জন্য বাংলাদেশ তথা গাজীপুরে ফিরে আসে। এর ভিতরে শেখ লায়লার গর্ভে আব্দুস সাত্তার তালেবের উরসজাত একটি সন্তান পেটে আসে। বিভিন্ন রকম তালবাহানা করে সাত্তারের অজান্তে শেখ লায়লা ৪ মাসের পেটের সন্তান রাতের আধারে গর্ভপাত করে নস্ট করে। তারপরও স্বামী দুবাই প্রবাসী আব্দুস সাত্তার তালেব শেখ লায়লাকে নিয়ে আবার দুবাই পাড়ি জমান। সেখানে গিয়েও আবাও শুরু করে বিভিন্ন রকম তালবাহানা সে আবার দুবাই বিভিন্ন বাংলাদেশি যুবকদের সাথে নতুন করে শুরু করে জঘন্যতম রঙ্গলীলা এবং সরল সোজা প্রবাসী স্বামীকে নিয়ে আবার ফিরে আসে নিজ দেশ গাজীপুরে।

এখানে এসে নিজের বাবা-মাকে নিয়ে বৈঠক বসিয়ে প্রবাসী স্বামীর নিকট নিজের বাপের ঘর বানানোর জন্য হাওলাদ স্বরূপ ১৫,০০,০০০ টাকা চায় এবং উক্ত টাকা ঘর কমপ্লিট হলে ভাড়া দিয়ে পরিশোধ করবে বলে অঙ্গীকার করে। আবারও স্বামীকে নিয়ে শেখ লায়লা পাড়ি জমায় দুবাইতে। এবার সেখানে গিয়ে শুরু করে বিভিন্ন রকম প্রবাসী স্বামীর উপর অমানুষিক অত্যাচার ও ঝগড়া-বিবাদ। এক সময় স্বামী বাসাতে না থাকায় ১০ ভরি স্বর্ণালংকার নিয়ে শেখ লায়লা বাংলাদেশে পালিয়ে এসে দুবাই প্রবাসী আব্দুস সাত্তার তালেবকে তালাক নামা প্রেরন করেন। উক্ত তালাকের কারন জানতে চাইলে শেখ লায়লা নিজেকে বড় রাজনৈতিক দলের নেত্রীর পরিচয় দিয়ে উক্ত হাওলাদের ১৫ লক্ষ টাকা ও ১০ ভরি স্বর্ণালংকারের জন্য আসলে তাকে জানে মেরে ফেলবে বলে হুমকি প্রদান করে মর্মে দুবাই প্রবাসী স্বামী আব্দুস সাত্তার তালেব বাদী হয়ে ঢাকা তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানায় একটি সাধারন ডায়রী করেন  যাহার নং ৩২, তারিখঃ ০১-০২-২০১৮। সুত্র:- সময়ের কণ্ঠ ও ভোরের ধ্বনি

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *