রাজাপুরে হিন্দু পরিবারের বাড়ি দখল ও ধান কেটে নেয়ার পায়তারার অভিযোগ

মোঃ আঃ রহিম রেজা, রাজাপুর (ঝালকাঠি): ঝালকাঠির রাজাপুরের বড় কৈবর্তখালি গ্রামের জয়রাম তেওয়ারীদের বাড়িসহ ১ একর ৪৬ শতাংশ জমি দখল ও রোপনকৃত পাকা ধান কেটে নেয়ার পায়তারার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ওই গ্রামের মৃত এন্তাজ উদ্দিন হাওলাদারের ছেলে আঃ রশিদ হাওলাদার, মৃত মোসলেম উদ্দিন হাওলাদারের ছেলে ফারুক হাওলাদার, মৃত ইব্রাহীম খলিফার ছেলে আল-আমীন ও রাজাপুর গ্রামের মৃত আকুব্বর আলী হাওলাদারের ছেলে আঃ ছত্তার হাওলাদার এ পায়তারা চালাচ্ছে বলে অভিযোগ করেন জয়রাম তেওয়ারী।

তিনি জানান,  উপজেলার পূর্ব ফুলহার গ্রামের নুরুল হক গাজীর বোন ওরফুন নেছা বিবি ও হায়াতন নেছা বিবি কাছ থেকে ৩২ নং মৌজার ১৬শ ৬৪ নং এস.এ খতিয়ানের ৮০৬ দাগ থেকে গত ১৯৭১ সালের ২২ ফেব্রুয়ারিতে ১ একর ২৫ শতাংশ জমি এবং ১৯৯৩ সালের ৩০ জুন ১৬শ ৬৪ এসএ খতিয়ানের ৮০৬ দাগ থেকে হায়াতন নেছার ছেলে আজিজুল হক ফরাজীর কাছ থেকে ২১ শতাংশ জমি দলিল মূলে রাজিত রাম তেওয়ারীর স্ত্রী শ্রী লচ্ছনা দেহী দেব্যা ক্রয় করে দীর্ঘদিন যাবত তার ওয়ারিশরাগন ভোগ দখল করে আসছেন।

কিন্তু প্রতিপক্ষরা জমি দখলের উদ্দেশ্যে চলতি বছরে বর্ষা মৌসুমে চাষাবাদের সময় থেকে বিভিন্ন রকমের বাধা প্রদান শুরু করলে শালিস ব্যবস্থায় হিন্দু পরিবারটির পক্ষে রায় আসলে প্রতিপক্ষরা স্থনীয় রায় উপেক্ষা করে আবার এ মৌসুমে ধান কাটার পায়তারা শুরু করে।

পরে জয়রাম তেওয়ারী ঝালকাঠির অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা দিলে আদালত চলতি মাসের ১২ ডিসেম্বর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তাকে বাদির রোপনকৃত ফসল কর্তন করিয়া তার জিম্মায় নেয়ার আদেশ দেন। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রিয়াজউল্লাহ বাহাদুর জানান, ঘটনাস্থল ঘুরে ফসল কর্তনে উপযুক্ত না হওয়ায় উভয় পক্ষকে ওই জমিতে সকল কার্যক্রম না করার জন্য লিখিত নোটিশ দেয়া হয়েছে।

 

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *