বোনের জন্য ভাইকে হত্যা করলেন মা

প্রথম সকাল ডটকম ডেস্ক: ঘটনাটি ঘটে ১৯৯৩ সালে। এক নিষ্ঠুর মা এবং সেই মায়ের বন্ধু মিলে, চরম নির্মমভাবে হত্যা করে নিজের পেটের ৬ বছর বয়সী শিশু পুত্র জন’কে। সেই মায়ের অভিযোগ ছিল, জন তার ৩ বছর বয়সী বোনকে অশোভন এবং কুরুচিপূর্ণ ভাবে ধরে ছিল।

তাই বদরাগী মা রেগে গিয়ে হাতুড়ির সাহায্যে প্রচণ্ড ভাবে ছেলেকে আঘাত করতে থাকে। ছোট বোনকে এভাবে অশোভন ভাবে ধরার অপরাধের একটা বড় রকমের শিক্ষা দিতে গিয়ে শেষ পর্যন্ত, সেই রাগী মা এবং তার বন্ধু, শিশূটিকে প্রানে মেরে ফেলেন।

সন্তান হত্যার দায়ে পরবর্তীতে অস্ট্রেলিয়ায় বসবাসকারী এশফিল্ড নামের সেই নারীকে ১৯ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়। জন নামের সেই মৃত ভাইটির ৩ বছর বয়সী বোন মেলিসা এখন অনেক বড় হয়েছে। চলুন মেলিসার মুখেই শুনে আসা যাক সেই মর্মান্তিক দিনের বর্ণনা, ‘আমার স্পষ্ট মনে আছে সে দিনের কথা। ভাইয়া আমাকে একদমই ছুঁয়ে দেখেনি।

কিন্তু আমার মা এবং তার বন্ধু হাতুড়ি দিয়ে আমার ভাইকে কেবলই পেটাচ্ছিল। কান্না জড়ানো কণ্ঠে চিৎকার করে জন বলছিল, মা আমাকে ছেড়ে দাও, আমি আর কখন ভুল করবো না। কিন্তু তারা তাকে ছাড়েনি। পরে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর চিকিৎসকরা জনকে মৃত ঘোষণা করেন। মেলিসা আরো বলে, সে তার মাকে ঘৃণা করে এবং তার ১১ বছর বয়সের পর থেকে সে আর তার মায়ের চেহারা দেখেনি এবং দেখতেও চায় না। সূত্র: ডেকান ক্রনিকল।

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *