ছাত্র সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ত্রিপুরার পরিস্থিতি উত্তপ্ত

গোবিন্দ দেবনাথ, (আগরতলা থেকে): ছাত্র সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে রাজ্যের রাজনৈতিক পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে। হিংসার আগুন কলেজ চত্বর পেরিয়ে রাজপথে। বামপন্থি ছাত্র সংগঠন এসএফআই এবং বিজেপির ছাত্র সংগঠন অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদের মধ্যে রক্তারক্তি সংঘর্ষ হয় শুক্রবার মহারাজা বীরবিক্রম কলেজে।

ব্যাপক ছাত্র সংঘর্ষে আহত বেশ কয়েকজন ছাত্রকে চিকিৎসার জন্য জিবি হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। কলেজ এবং পুলিশ সূত্রে পাওয়া খবরে জানা গেছে শুক্রবার ছাত্র সংসদে নির্বাচনের জন্য অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদের সমর্থক ছাত্ররা মনোনয়ন পত্র দাখিল করতে গেলে প্রতিপক্ষীয় এসএফআই এর ছাত্র ও ছাত্রীরা বাধা দেয়।

এথেকেই সংঘর্ষের সূত্রপাত হয়। অভিযোগ এবিভিপির দুইজন ছাত্রকে কলেজ চত্বরেই মারধর করা হয় ফলে তাদের উদ্ধারের এবিভিপির সমর্থকরা ছুটে আসে এবং সমগ্র কলেজ চত্বর কার্যত রণক্ষেত্রের রূপ নেয়। এবিভিপির পাল্টা আক্রমণে এসএফআইর বেশ কয়েকজন ছাত্র আহত হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, মহারাজা বীরবিক্রম কলেজ এবং তার আশ পাশের সমগ্র এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। বিশাল পুলিশ বাহিনী ঘটনাস্থলে রয়েছে এবং পরিস্থিতি সামাল দেবার চেষ্টা করছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ছে সন্ধ্যায়।

তবে পুলিশ এবিভিপির সমর্থকদের এবং এসএফআইর সমর্থকদের নিদিষ্ট দূরত্বে নিয়ে যেতে সক্ষম হয়েছে। চলতি মাসেই ছাত্র সংসদ নির্বাচনের কথা রয়েছে। এদিকে, মহকুমাশাসক, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কলেজ চত্বর ঘুরে দেখেন। এবিভিপি সমর্থকরা হামলার প্রতিবাদে রাজধানী রাজপথ অবরোধ করেছে। টায়ার জ্বালিয়ে প্রতিবাদ করেছে।

This website uses cookies.