নারী আন্দোলনে স্মরণীয় নাম আইভি রহমান

আলহাজ¦ সজীব আহমেদ, (ভৈরব): আইভি রহমান বাংলাদেশের নারী আন্দোলনের এক অনন্য সেনানীর নাম।যার রাজনৈতিক কর্মকান্ডের যাত্রা শুরু ১৯৬২ সালে।২০০৪ সালের ২১শে আগস্ট বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে আ’লীগের জনসভায় গ্রেনেড হামলায় গুরুতর আহত হন প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমানের সহধর্মিনী নারীনেত্রী বেগম আইভি রহমান।

পরে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে তিন দিন মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে ২৪ আগষ্ট  তিনি মৃত্যুবরণ করেন। ১৩ বছরের এ হত্যাকান্ডের বিচার কাজ শেষ না হওয়ায় বিক্ষুব্ধ তার স্বজনরা।

২০০৪ সালের ২১শে আগস্ট বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে গ্রেনেড হামলায় রাজপথেই জীবন দানের মাধ্যমে আদর্শ, কৃতি মানবী, মহিয়সী নারীতে পরিনত হন আইভি রহমান। ওইদিন বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে সন্ত্রাস বিরোধীতা সমাবেশে নরপিশাচদের গ্রেনেড হামলায় ২২ জন নিহত হয়।

আহত হয় আরও অনেকে তাদের মধ্যে ভৈরবের আকবর নগর গ্রামের মফিজ উদ্দিনের ছেলে নাজিম তার প্রিয় নেত্রী আইভি রহমানকে বাঁচাতে এগিয়ে গেলে নিজেও গ্রেনেড এর হামলার তার ২ পা ও বুকে আঘাত হানে। শহীদ আইভি রহমানের ছেলে আলহাজ নাজমূল হাসান পাপন এমপি বলেন, মূলত এ আক্রমনটি করেছিল জননেত্রী শেখ হাসিনসহ আওয়ামীলীগের সিনিয়র নেত্রীবৃন্দকে মারার জন্য।

ওই সময় রাষ্ট্রীয় মদদে এ হামলাটি হয়েছিল যা বাংলাদেশে কখনো হয়নি। ফলে ওই সময় সরকার এ হত্যাকান্ডা নিয়ে উপহাস করেছিল। মামালর বিচার কাজ বিলম্বিত হওয়ায় তিনি দুঃখ প্রকাশ করেন। তিনি বিশ্বাস করেন জননেত্রী শেখ হাসিনা যদি বেচে থাকেন তবে এ  হত্যাকান্ডের বিচার হবেই।

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *