ছাতকের পালপুর-জাতুয়া পাকা সড়কের উপর বাঁশের সাকো

চান মিয়া, ছাতক (সুনামগঞ্জ): ছাতকের পালপুর-জাতুয়া সড়কের মর্যাদ এলাকায় পাকা সড়কের উপর বাশেঁর সাঁেকা দিয়ে গন্তব্যে পৌছছেন কয়েকটি গ্রামের লোকজন। অর্ধযূগের অধিক সময় থেকে পাকা সড়কটি সংস্কার ও মেরামত না করায় রাস্তাটি অনেক স্থানে ভেঙ্গে এখন কৃষি ভূমির সাথে মিশে গেছে।

ফলে সড়কে চলাচল করতে গিয়ে দক্ষিণ খুরমা ইউনিয়নের মর্যাদ, মহব্বতপুর ও খুরমাসহ বিভিন্ন গ্রামের স্কুুল, কলেজ, মাদরাসা ও স্থানীয় লোকজনের যাতায়াতের জন্যে ইউপি সদস্য গতবছরের ন্যায় এবারেও বাশেঁর সাকোঁর ব্যবস্থা করেছেন।

মারাত্মক ভাঙ্গন কবলিত এ সড়কের অনেক স্থানে দেড় থেকে ২ফুট গভীর গর্ত তথা এখন সড়কটি যেন পরিনত হয়েছে মিনি পুকুরে। একসময়ে পালপুর-জাতুুয়া ও পালপুর- সিরাজগঞ্জ সড়কে যানবাহন চলাচল করলেও মারাত্মক ভাঙ্গনের ফলে এখন বন্ধ হয়ে পড়েছে যানচলাচল।

২০১০সালে সড়কটি ছাতক এলজিইডি রাস্তার পাকাকরণ সম্পন্ন করলে দক্ষিণ খুরমা, সিংচাপইড় ও দোলারবাজার ইউনিয়নের মধ্যে সংযোগ স্থাপনসহ গোটা দক্ষিণ ছাতকবাসির যাতায়াতের জন্যে সড়কটি অতিগুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠে। কিন্তু সাত বছর থেকে এর সংস্কার কাজ না করায় এটি যেন এখন মরণ ফাঁদে পরিণত হয়েছে।

এলাকাবাসির পক্ষে সমাজসেবী আবু সালেহ, আব্দুল মজিদ, সফিক মিয়াসহ অনেকে সড়ক সংস্কারের দাবী জানিয়েছেন। এব্যাপারে ইউপি সদস্য আব্দুল আলিম জানান, মারাত্মক ভাঙ্গন কবলিত সড়কে শিক্ষার্থীসহ লোকজন যাতায়াতের জন্য দু’বছর থেকে তিনি বাশেঁর সাকোঁ দিয়ে যাচ্ছেন। বর্ষা মৌসুমে সড়ক দিয়ে এখন গাড়ি চলাচল করতে পারছেনা।

ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মছব্বির, সায়েস্তা মিয়া ও শাহাব উদ্দিন মো. সাহেল জানান, সড়কটি ৩টি ইউনিয়নবাসির চলাচলের অতিগুরুত্বপূর্ণ একটি মাধ্যম ছিল। কিন্তু মেরামত না হওয়ায় জনভোগান্তি এখন ধৈর্য্যরে সীমা ছাড়িয়ে গেছে। এ রাস্তাটি সংস্কারে সরকার ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করছেন এলাকাবাসি।

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *