কুরিয়ার সার্ভিসের পেকেটে নবজাতক

020প্রথম সকাল ডটকম ডেস্ক: নিয়ে যাচ্ছিলেন কুরিয়ারের পণ্য। পৌঁছে দিতে হবে সঠিক ঠিকানায়। কুরিয়ার সার্ভিসের দায়িত্বে থাকা ওই ব্যক্তি হঠাৎ টের পেলেন, একটি প্যাকেট নড়াচড়া করছে।

কান্নার শব্দও আসছে সেটি থেকে। চমকে উঠে প্যাকেটটি খুললেন তিনি। অবাক চোখে দেখলেন, সেটির ভেতরে রয়েছে জলজ্যান্ত একটি মানবশিশু। স্থানীয় সময় গত বৃহস্পতিবার চীনের ফুঝোউ শহরে এ ঘটনা ঘটে।

পরে পুলিশ ওই শিশুর মাকে শনাক্ত করে গ্রেপ্তার করেছে। নবজাতকের মা লুওর (২৪) বরাত দিয়ে ফুঝোউ শহরের পুলিশ জানায়, গত বুধবার নিজের সন্তানকে কালো প্লাস্টিকের প্যাকেটে ভরে একটি এতিমখানায় পাঠানোর জন্য কুরিয়ার সার্ভিসে পাঠান তিনি। এ সময় তাঁর ‘পণ্য’ পরীক্ষা করতে দেননি তিনি।

বুকিং দেওয়ার পর তা পরিবহনে করে গন্তব্যের উদ্দেশ্যে চলে যায়। খবর পেয়ে ওই নবজাতককে উদ্ধারের জন্য ঘটনাস্থলে ছুটে যায় পুলিশ। সে সময় করা ভিডিও সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে ওই শিশুর মায়ের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করেন ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা।

উদ্ধারের পর শিশুটিকে স্থানীয় জিনআন জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে শিশুটির অবস্থা আশঙ্কামুক্ত বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। এদিকে পুলিশ জানিয়েছে, ওই শিশুটিকে তার মা বাসায় নিয়ে যেতে পারবেন।

তবে পুলিশের ওই সিদ্ধান্তে নারাজ অনেকেই। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অনেকেই জানান, শিশুটিকে মায়ের কাছে ফিরিয়ে দিলে তিনি আবার শিশুটিকে এতিমখানায় পাঠিয়ে দেবেন।

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *