শাহজাদপুরে চলছে পোনা মাছ নিধনের মহা উৎসব

মোঃ মোশাররফ হোসেন মাসুদ, শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ): নদী নালা খাল-বিলে পানি প্রবেশের পর থেকেই শাহজাদপুর উপজেলায় শুরু হয়েছে পোনা মাছ নিধনের মহা উৎসব। পেশাদার জেলেদের পাশাপাশি মৌসুমী জেলেরা বেড়ি জাল দিয়ে সমূলে নিধন করছে ছোট ছোট মাছ।

প্রতিদিন সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত উপজেলা করতোয়া,হুরাসাগর, বড়াল,যমুনা নদী ছাড়াও বিভিন্ন শাখা নদী এবং বিলগুলিতে জেলেরা ট্রলার নৌকা নিয়ে মাছ শিকার শুরু করেছে।

জুন মাস থেকে সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত পোনা মাছ নিধন আইনগতভাবে দন্ডনীয় অপরাধ হলেও কে শুনে কার  কথা। প্রশাসনের কোন অভিযান না থাকায় ক্রমশই বেপরোয়া হয়ে উঠছে মৌসুমী জেলেরা। সরে জমিনে ঘুরে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় জেলেদের ছোট মাছ নিধন লক্ষ করা গেছে।

শাহজাদপুর উপজেলার  সকল হাট বাজারে বোয়াল, কাতলা, রুই, মৃগেল ও অন্যান্য মাছের পোনা ব্যাপক হারে জেলেরা আহরন করে বিনা বাঁধায় হাটবাজার সমূহে বিক্রয় করছে। মৎস্য শিকারীরা  জানান,  ছোট মাছের চাহিদা বাজারে ব্যাপক। তাছাড়াও স্যাররাও ছোট মাছ খাইতে পছন্দ করে  তাই তাঁরা কোন রকম বাঁধা পাচ্ছেননা।

জানা যায়, উপজেলা মৎস্য অফিসের কিছু অসাধু কর্মকর্তা যোগ সাজশে অর্থ্যাৎ তাদের সঙ্গে দফা রফা করে মাঝিরা হাটবাজারে আইন নিষিদ্ধ পোনা মাছ বিক্রয় করছে। এ জন্য মৎস্য অফিসের কিছু অসাধু কর্মকর্তা কর্মচারীদের মাসিক মাসোহারা দিতে হয়। এছাড়া উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ করতোয়া,বড়াল,হুরাসাগর,নদীতে অবাধে কারেন্ট জাল দিয়ে মাছ ধরা হচ্ছে।

মৎস্য বিভাগ এ ব্যাপারে কোন ব্যবস্থাই নিচ্ছে না। উপজেলা মৎস্য অফিসের কর্মকর্তারা জানান, তারা বিভিন্ন হাটবাজারে নিষিদ্ধ পোনা মাছ বিক্রি করতে দেখেছেন খুব শীঘ্রই উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মাধ্যমে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে জাল পুড়িয়ে দেয়া এবং জেলেদের জরিমানা করা হবে।

জনবল সঙ্কটকেও দায়ী করেন তাঁরা। কবে নাগাদ অভিযান চলবে তা পরিষ্কার করে বলেননি। ফলে অবাধেই পোনা মাছ নিধন চলছে। পোনা মাছ নিধন অব্যাহত থাকলে আগষ্ট -সেপ্টেম্বর মাসে হাট-বাজার গুলিতে দেশি মাছের আকাল দেখা দিবে।

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *