দেখতে মানব সন্তানের মতো হলেও আসলে মানব সন্তান নয়!

প্রথম সকাল ডটকম ডেস্ক: জীবন্ত শিশুর বিকল্প হিসেবে প্লাটিনাম কিওর্ড সিলিকন (platinum cured silicone) দিয়ে পুতুল তৈরি হচ্ছে উত্তর স্পেনের বিলাবাও শহর থেকে ১৫ মিনিটের দূরত্বে থাকা লিওনা মিউনিসিপ্যালিটিতে।

দেখতে মানবসন্তানের মতো হলেও আসলে তা নয়। বেবি ‘ক্লোন’ ফ্যাক্টরির ডিরেক্টর ক্রিস্টিনা ইগনেসিয়াসের দাবি, পৃথিবীতে একমাত্র তার কারখানা থেকেই এ ধরনের বেবি ক্লোন তৈরি হয়। ক্রিস্টিনা জানান, কখনো অর্ডার অনুযায়ী বেবি ডল তৈরি করে দেন তার টিম।

সেখানে রেফারেন্স হিসেবে থাকে আসল কোনো মানব সন্তানের ছবি। অনেক সময় ক্রেতা নিজের পছন্দ মতো বেবি ডলের ত্বক, চুলের রং বা হাত-পায়ের গড়ন অর্ডার দেন। কখনো বা ক্রিস্টিনা নিজের শিল্পসত্তা ফুটিয়ে তোলেন বেবি ডলের মধ্যে। ক্রিস্টিনা আরও জানান, মূলত বেবি ডলের চার ধরনের ক্রেতা পেয়েছেন তিনি।

সন্তান বড় হয়ে গিয়েছে কিন্তু তার ছোটবেলার একটি রেপ্লিকা রেখে দিতে চান এমন বাবা-মা। যাদের সন্তান নেই, দত্তকও নেবেন না এমন দম্পতিরা। যারা এমন ধরনের পুতুল সংগ্রহ করে রাখেন এবং যারা নিজেরাই রিবর্ন আর্টিস্ট। বেবি ক্লোন কিনে সেটা রং করে নিজেদের মতো করে বেবি ডল তৈরি করে ক্রেতাদের কাছে বিক্রি করেন।

তবে সন্তান মারা যাওয়ার পর মৃত সন্তানের ছবি নিয়ে ক্রিস্টিনার কাছে পুতুল তৈরির অর্ডার নিয়ে এখনো পর্যন্ত কেউ আসেননি বলে জানান তিনি। সাত বছর আগে এই ধরনের স্পেশাল এফেক্টস ওয়ার্কশপের কাজ শুরু করেন ক্রিস্টিনা। ২০১৩ থেকে লঞ্চ করেন তাদের বেবি ক্লোন ব্র্যান্ড। স্পেনে এই ব্র্যান্ডের ডিস্ট্রিবিউটার সিলভিয়া অর্টিজের মাথায় প্রথম এই ‘হাইপার রিয়্যালিস্টিক’ পুতুল তৈরির আইডিয়া আসে।

তিনি ক্রিস্টিনার সঙ্গে তা শেয়ার করেন। ক্রিস্টিনা ভেবেছিলেন, এটা খুব অদ্ভুত ধারণা। তবে একটা-দু’টো করে এ ধরনের পুতুল তৈরি করার পর দেখা গেল, সেগুলি বিক্রি হচ্ছে। চাহিদাও ভালো। তখনই এটা নিয়ে বড় আকারের ব্যবসা শুরু করার কথা ভাবেন তিনি। সিনেমায় ব্যবহার হয় এমন কিছু টেকনিকও এই ধরনের পুতুল তৈরিতে কাজে লাগান ক্রিস্টিনা।

মাত্র কয়েক বছর স্পেনের বিলবাওতে শুরু হয়েছে রিবর্ন ফেস্টিভ্যাল। উত্তর স্পেনের এই শহরে ফেস্টিভ্যাল শুরু হলেও জার্মানিতে সদ্য এর নতুন করে ক্রেজ চালু হয়েছে। যেখানে বিভিন্ন অদ্ভুত ডিজাইনের শিশু শরীর (বেবি এভাটার) পাওয়া যায়। ঠিক জেমস ক্যামেরুন পরিচালিত ‘এভাটার’ সিনেমায় দেখা প্রাণীদের মতো।

 ত্বক বা চুলের রঙ, এমনকী ‘শিশু’ ছেলে হবে না মেয়ে তাও নির্ভর করে ক্লায়েন্টের পছন্দের কথা মাথায় রেখে। আর যেখানে কোনো শিশুর শৈশব রূপকে ধরে রাখতে হয় পুতুলে, সেখানে পারফেকশনিস্ট হতে হয় অনেক বেশি। ক্রিস্টিনা বলছেন, ‘আমরা খুব স্পেসিফিক অর্ডার পাই। শিশুর শরীরের কোনো বিশেষ অংশে জন্মদাগ থাকলে সেটাও পুতুলের মধ্যে তৈরি করে দিতে বলা হয়।

ক্রিস্টিনা জানান, স্পেনে এই ধরনের পুতুল সংগ্রহ করাটা অনেকেরই অভ্যেসে দাঁড়িয়েছে। এই ধরনের বেবি ডল সবচেয়ে বেশি রফতানি হয় আমেরিকায়। এর পরের তালিকায় রয়েছে অস্ট্রিয়া, জাপান, কলম্বিয়া, ব্রাজিল ও ইরান। ক্রিস্টিনার কথা, ‘সিলিকন বেবিরা কিন্তু আসল নয়। তাদের কখনও জন্ম হয় না। এগুলো শুধু সংগ্রহের জন্য। মনে রাখতে হবে আমরা একটি কারখানা, সন্তান জন্ম দেওয়ার মেশিন নই।

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *