শ্যামনগরে প্রবাহহীন আদি যমুনা : আবর্জনায় পরিপূর্ণ

বিজয় মন্ডল, শ্যামনগর, (সাতক্ষীরা): শ্যামনগর উপজেলা সদর তথা আশপাশের বৃহত্তর এলাকার বহুসংখ্যক মানুষের জলাবদ্ধতা থেকে মুক্ত থাকার একমাত্র অবলম্বন প্রবাহমান আদি যমুনা নদী।

অতীথে প্রবাহমান আদি যমুনার ভরা যৌবনে দুকূলে যমুনার অাছড়ে ঢেউ  আর জোয়ার ভাটার স্রোত হয়তো অনেকে দেখেছে, অনেকে হয়তো পালতোলা নৌকায় চড়েছে, অনেকে হয়তো বৈঠা ধরেছে।

এ কথায় প্রবাহমান আদি যমুনার রয়েছে সূদীর্ঘ ইতিহাস। কিন্তু অত্যান্ত দূঃখের বিষয় হলো বর্তমান সময়ে প্রবাহমান আদি যমুনা তার পুরাতন যৌলুস হারিয়েছে, হারিয়েছে স্রোত হারিয়েছে ঢেউ। অবৈধ দখল গ্রাস করেছে যমুনা নদীকে। বর্তমানে যমুনা নদীতে নেই প্রবাহ।

এর মূল কারন হিসেবে দায়ী করা যেতে পারে অবৈধ দখল আর অপরিকল্পিত রাস্তা নির্মানকে। বর্তমানে যমুনা একটা সরু খালে পরিনত হয়েছে, যা বর্ষা আসলেই ভরে যায়, জলাবদ্ধতায় আবদ্ধ হয় শ্যামনগরের বৃহৎতর এলাকা, আবার সুস্ক মৌসুমে যমুনার পানি একেবারেই সুকিয়ে যায়, যার ফলস্বরূপ শ্যামনগরে বহু সংখ্যক কৃষক প্রয়োজনীয় সেচ সুবিধা ও পানির অভাবে ফসল উৎপাদন করতে পারে না।

এছাড়া বর্তমানে যমুনায় সৃষ্টি হয়েছে নতুন সমস্যা, একদিকে যমুনায় প্রবাহ নেই অন্যদিকে কতিপয় অসাধু অসচেতন মানুষদের নিয়মিত ময়লা  আবর্জনা ও বর্জ্য ফেলার কারনে  যমুনায় সৃষ্টি হচ্ছে মারাত্মক দূর্গন্ধ, যে কারনে যমুনার আশপাশের এলাকা সহ শ্যামনগর বাজারের পরিবেশ ব্যাপক ভাবে দূষিত হচ্ছে।

উল্লেখ্য সাতক্ষীরা- ৪ আসনের বর্তমান এম পি এস এম জগলুল হায়দারের অক্লান্ত প্রচেষ্টায় এবং শ্যামনগরের সদ্য বিদায়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবু সায়েদ মোঃ মনজুর আলমের একান্ত সহযোগিতায় প্রবাহমান আদি যমুনায় দৃশ্যমান পরিবর্তন এসেছে। যমুনার বিভিন্ন গূরূপ্তপূর্ণ স্থানে নির্মিত হচ্ছে ব্রীজ/কালভার্ট। এক কথায় সাতক্ষীরা- ৪ আসনের সংসদ সদস্য এস এম জগলুল হায়দার যমুনায় প্রান ফিরাতে তার প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছেন।

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *