ডোমার মিরজাগঞ্জে স্কুল ছাত্রী উদ্ধার : প্রকৃত পরিচয় প্রয়োজন

আবু মোতালেব হোসেন, (নীলফামারী): নীলফামারীর ডোমার মিরজাগঞ্জে সুমাইয়া জান্নাত (১১) নামে এক স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার করেছে এলাকাবাসী। ঘটনার বিবরণে যানা যায়, গত ১২মে শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার জোড়াবাড়ী ইউনিয়নের মিরজাগঞ্জ রেলষ্টেশন বাজারে ক্ষুধার জা¦ালায় কাঁদছিল।

এলাকার মৃত শমশের আলীর ছেলে ওই বাজারের ভাইভাই হোটেলের মালিক রিয়াজুল ইসলাম মেয়েটিকে খাবার দিয়ে বাড়ীতে নিয়ে যায়।

মেয়েটির পরিচয় জানতে চাইলে নাম-সুমাইয়া জান্নাত, পিতা-লুৎফর রহমান, মাতা-মৃত-ফরিদা বেগম, দাদা-ফজলুল হক, গ্রাম-ফিরোজপুর, থানা-শান্তাহার, জেলা- নওগাঁ বলে  সে জানায়। অপর দিকে সে পিএসসি পাশ করে ৬ষ্ঠ শ্রেনীতে পড়ে।

তার রোল নম্বর নিয়ে ইন্টারনেটে দেখা যায়, ১৭সালের পিএসসি পরিক্ষার ফলাফলে সুমাইয়া জান্নাত, পিতা-আবু সায়েদ মোঃ বকলুর রহমান, মাতা-ফরিদা ইয়াসমিন, মোরছুলা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, রোল নং-৫৬১৪, উপজেলা ও জেলা নওগাঁ সদর লেখা রয়েছে এবং ৩.২৫ পয়েন্ট পেয়ে পাশ করেছে।

অশ্রুঝড়া কন্ঠে মেয়েটি আরো জানান, ৩বছর পূর্বে তার মা মারা গেছে, বাবা নতুন বিয়ে করেছে সৎমা মনিরা বেগম প্রায় তাকে শারিরিক ও মানুষিক নির্যাতন করে। গত বুধবার সৎ মা মনিরার সাথে নীলফামারী আত্বিয়র বাড়ীতে বেড়াতে আসে তাকে বাজারে রেখে সৎ মা পালিয়ে যায়। ট্রেনে উঠে ডোমারে আসে এবং শেষে পায়ে হেঁটে মিরজাগঞ্জ বাজারে যায়।

মেয়েটির পরিচয় দাতাকে-০১৭৪৬-০০৮৮৮৪ এই নম্বরে যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ করেছেন আশ্রয়দাতা রিয়াজুল ইসলাম। আসল পরিচয় পেলে তার বাবার কাছে হস্তান্তর করবে বলে তিনি যানান। এবিষয়ে ডোমার থানায় একটি সাধারণ ডায়রী করার প্রস্তুতি চলছে।

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *