যশোরে স্ত্রীকে পুড়িয়ে হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

প্রথম সকাল ডটকম (যশোর): যশোরে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে পুড়িয়ে হত্যার দায়ে আব্দুল্লাহ নামে এক ব্যক্তিকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়াও তাকে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

বুধবার দুপুরে যশোরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক (জেলা জজ) অমিত কুমার দে এ রায় দেন। মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আব্দুল্লাহ ওরফে তিতুমীর ওরফে তীতু যশোর সদর উপজেলার সুলতানপুর বাবুপাড়া এলাকার আইয়ুব আলীর ছেলে।

নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিশেষ পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট ইদ্রিস আলী রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। আদালত ও মামলা সূত্রে জানা গেছে, যশোর সদর উপজেলার মোবারককাটি গ্রামের কবির হোসেনের মেয়ে সালমা খাতুনের সঙ্গে ২০১১ সালের শুরুর দিকে বিয়ে হয় আব্দুল্লাহর।

বিয়ের পর পালসার মোটরসাইকেল যৌতুক দাবি করে আব্দুল্লাহ। দাবি মেটাতে ব্যর্থ হওয়ায় স্ত্রীকে শারীরিকভাবে নির্যাতন শুরু করে সে। সর্বশেষ ২০১২ সালের ৯ জুলাই ভোররাতে সালমাকে মারপিটের পর গায়ে কেরোসিন দিয়ে পুড়িয়ে হত্যা করে আব্দুল্লাহ। এ ঘটনায় নিহত সালমার বাবা কবির হোসেন বাদী হয়ে যশোর কোতোয়ালি মডেল থানায় আব্দুল্লাহ, তার বাবা, মা ও ভাইকে আসামি করে মামলা করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আব্দুল মান্নান শেখ ২০১২ সালের ১১ নভেম্বর আব্দুল্লাহ ও তার বাবাকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। আদালত চার্জ গঠনের সময় তার বাবাকে বাদ দিয়ে আব্দুল্লাহকে অভিযুক্ত করে বিচার শুরু করেন। মামলার সাক্ষ্যপ্রমাণ শেষে আজ বিচারক অমিত কুমার দে আসামি আব্দুল্লাহকে মৃত্যুদণ্ড দেন এবং এক লাখ টাকা জরিমানা করেন।

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *