তেঁতুলিয়ার ইতিহাসে সবচেয়ে বড় প্রাকৃতিক বিপর্যয় : কোটি কোটি টাকার ক্ষয়-ক্ষতি

সোহাগ হায়দার, (পঞ্চগড়): পঞ্চগড়ের জেলার তেঁতুলিয়ার ইতিহাসে সবচেয়ে বড় প্রাকৃতিক বিপর্যয়ে কোটি কোটি টাকার ক্ষয়-ক্ষতি। টানা ৩০ থেকে ৪০ মিনিটের ঝড়ো হাওয়া, বজ্রপাত ও ব্যাপক শিলা বৃষ্টিতে উপজেলার প্রায় ৬০ হাজার মানুষ ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে।

শনিবার বিকাল ৪.৩০মিনিট থেকে ৫.১০ মিনিট পর্যন্ত এই ঝড়ো হাওয়া, বজ্রপাত ও শিলা বৃষ্টি হয়। বজ্রপাত ও শিলা বৃষ্টিতে এখন পর্যন্ত প্রায় ১০ জন আহতের খবর পাওয়া গেছে। আহতদের মধ্যে ৫জন শিশু, ৩জন মহিলা শিলা বৃষ্টিতে আহত হয় এবং ২জন বজ্রপাতে আহত হয়েছে।

আহতদের মধ্যে অনেকেই তেঁতুলিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেৃএ চিকিৎসাধীন রয়েছে। এই ঝড়ো হাওয়া ও শিলা বৃষ্টিতে উপজেলার অনেক কাচা-পাকা ঘর, গাছ পালা ভেঙ্গে গেছে। সবচেয়ে বেশি শিলা বৃষ্টিতে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে উপজেলার বুড়াবুড়ি, ভজনপুর ও দেবনগর ইউনিয়নে। আনুমানিক প্রায় ৯০% মানুষ ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে বলে ক্ষতিহ্রস্থদের ধারণা।

এতে এই তিনটি ইউনিয়নের হাজার হাজার কাচা-পাকা বসত বাড়ি, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, ফসলী জমি সহ বিভিন্ন ফসলের ব্যাপক আকারে ক্ষয় ক্ষতি হয়েছে। অসংখ্য গাছ-পালা ভেঙ্গে গেছে। বিছিন্ন হয়ে পড়েছে বিদ্যুৎ ব্যবস্থা। অনেক যানবাহনের গ্রাস বৃষ্টিতে ভেঙ্গে গেছে। অসংখ্য গোবাদি পশু অহত হয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েছে। এবং অনেক চা বাগানের ব্যাপক ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে।

তেঁতুলিয়া উপজেলা কৃষি অফিসার জাহাঙ্গীর আলম জানান, কৃষকদের ক্ষয়-ক্ষতির পরিমাণ নির্ণয় করার জন্য আমি সহ উপজেলার সকল কৃষি কর্মকর্তারা ঝড়ের পরেই মাঠ পর্যায়ে চলে আসি। তেঁতুলিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সানিউল ফেরদৌস জানান, ক্ষতিগ্রস্থ এসব এলাকায় কত কোটি টাকার ক্ষয়-ক্ষতি তা নির্ণয় করা যায় নি। তবে ক্ষতিগ্রস্থদের ত্রাণ সহায়তা করা হবে বলে জানান। শেষ লেখা পর্যন্ত ক্ষতিগ্রস্থ এসব এলাকায় অনেকেই দুরবিসহ জীবন যাপন করছেন।

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *