কক্সবাজারের মহেশখালী থেকে ২২ আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার : আটক ২

প্রথম সকাল ডটকম (কক্সবাজার): কক্সবাজারের মহেশখালীতে অস্ত্র তৈরির কারখানা থেকে দেশীয় তৈরি ২২টি আগ্নেয়াস্ত্র, ২২ রাউন্ড গুলি এবং অস্ত্র তৈরির বিভিন্ন সরঞ্জাম উদ্ধার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব-৭)।

এসময় অস্ত্র তৈরির সঙ্গে জড়িত দুজনকে আটক করা হয়েছে। বুধবার সকাল ৯ টা থেকে দুপুর ৩ টা পর্যন্ত মহেশখালী উপজেলার বড় মহেশখালীর পাহাড়ি এলাকায় এ অভিযান চালায় র‌্যাব।

আটক ব্যক্তিরা হলেন, বড় মহেশখালী ইউনিয়নের মহিষের ডেইল এলাকার মৃত আজম উল্লাহর পুত্র আবদুল মাবুদ (৪০) ও একই ইউনিয়নের আহমদিয়া কাটা এলাকার কবির আহমদের পুত্র আবু তাহের (৪২)।

উদ্ধার করা ২২টি অস্ত্রের মধ্যে রয়েছে, ১৪টি এক নলা বন্দুক, ৬টি ওয়ান শ্যুটার গান, একটি থ্রি কোয়ার্টার বন্দুক ও ১ টি দেশীয় রাইফেল। এছাড়াও ২২ রাউন্ড গুলি, ড্রিল মেশিন, বন্দুকের পাইপ,প্লায়ার্স, ব্লেড, এয়ার মেশিনসহ অস্ত্র তৈরির বিভিন্ন সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়। সন্ধ্যা ৬ টার দিকে কক্সবাজার র‌্যাব ক্যাম্পে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাব-৭ এর কোম্পানি কমান্ডার লে. কমান্ডার আশেকুর রহমান জানান, ‘গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বড় মহেশখালীর পাহাড়তলীতে অভিযান চালানো হয়।

এসময় অস্ত্রের কারখানা থেকে দুজন মেকানিককে আটক সহ এসব অস্ত্র, গুলি ও সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়। তিনি বলেন, ‘এসব অস্ত্র ডাকাত, রোহিঙ্গা ও জলদস্যুদের কাছে বিক্রি করা হতো।এর আগেও আবদুল মাবুদ আটক হয়ে কারাগারে ছিল। সম্প্রতি কারাগার থেকে বেরিয়ে আবারও তিনি একই কাজে লিপ্ত হন। এব্যাপারে অস্ত্র আইনে মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *