পল্লবীতে গৃহবধূ দগ্ধ’র ঘটনায় স্বামী আটক

প্রথম সকাল ডটকম; রাজধানীর পল্লবীতে গৃহবধূ শাহানা পারভীন শাহানা ও তার দেড় বছর বয়সী মেয়ে আগুনে দগ্ধ হওয়ার ঘটনায় সন্দেহের তীর এখন স্বামী ইব্রাহীম রনির দিকে। এ ঘটনায় সন্দেহভাজন হিসেবে রনিকে আটক করেছে পুলিশ।

গতকাল রাত সাড়ে ৯টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল থেকে রনিকে আটক করা হয়। তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন পল্লবী থানার ওসি দাদন ফকির। তিনি বলেন, স্বামীর দেয়া ঘটনার বর্ণনা আমাদের কাছে সন্দেহজনক মনে হওয়ায় তাকে আটক করা হয়েছে। তাছাড়া শাহানার পরিবারের অভিযোগ রয়েছে বলেও জানান তিনি।

রনির সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, তারা পল্লবীর ১২ নম্বর সেকশনের ২৯ নম্বর রোডের ব্লক ডি তে একটি ৬ তলা বাসায় (নতুন ওঠায় বাসা নম্বর জানাতে পারেননি) ভাড়া থাকেন। দুপুরে শাহানা রান্নাঘরে চুলা জ্বালাতে গেলে বিকট শব্দে আগুন ধরে যায়। পরে তাকে বাঁচাতে গিয়ে মেয়েসহ তিনি নিজেও দগ্ধ হন।

পরে বিকেল সাড়ে ৫টায় দগ্ধ অবস্থায় তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেয়া হয়। ঢামেক বার্ন ইউনিটের আবাসিক সার্জন পার্থ শঙ্কর পাল জানান, শাহানা আক্তারের শরীরের ৫০ ভাগ দগ্ধ হয়েছে, রনির হয়েছে ৭ ভাগ। আর তাদের মেয়ে রুজির দুই হাত পুড়ে গেছে।

This website uses cookies.