ম্যানেজিং কমিটির সদস্য লাঞ্ছিত : ৯ গ্রামের প্রতিবাদ সভা

6

আকতার হোসেন (রবিন)(কুমিল্লা): কুমিল্লার তিতাসে ইভটিজিং এর প্রতিবাদ করায় বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্যকে লাঞ্ছিত করার প্রতিবাদে সভা করেছে ৯ গ্রামের অভিভাবকবৃন্দ। গত রবিবার রাতে উপজেলার চরকুমারিয়া গ্রামের কাঠালিয়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে সামছুল হক মাষ্টারের সভাপতিত্বে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে মো. গিয়াস উদ্দিন মাষ্টারের পরিচালনায় উন্মুক্ত বক্তব্য রাখেন, চরকুমারিয়া গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা আলাউদ্দিন ফজুল, মো. ইলয়াস, সফিক মেম্বার, সান্তি মেম্বার, মো. শাহ আলম, নুরুল ইসলাম সিকদার, বারকাউনিয়ার মতিন বেপারী, ধুনু মিয়া, যুবরাজ মেম্বার, আক্তার হোসেন, নয়াকান্দির হারুন মিয়া, বড় স্বরস্বতীর চরের আলাউদ্দিন এলাহী, করিম সওদাগর, কামরুজ্জামান হিরা, ছোট স্বরস্বতীর চরের বারেক মেম্বার, ডা. আব্দুল গাফ্ফার, ইসমাইল মিয়া, কৃষ্টপুরের মো. হোসেন মেম্বার, মো. মুকবল মিয়া, শ্রী দ্বিপক গোস্বাই, হরিণপুরের মোক্তার হোসেন, মোনাফ মিয়া, মজমেরকান্দি মো. সুমন মিয়া, তাতুয়াকান্দি তোতা মিয়া প্রমুখ।

এছাড়াও উক্ত ৯ গ্রামের যুবক, বৃদ্ধ, শিক্ষক ও গুণিজনসহ বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। বক্তরা তাদের বক্তব্যে বলেন, সন্ত্রাসী দেলোয়ার দারোগা ও সাদতের গুন্ডাদের বিচার না হওয়া পর্যন্ত এই নয় গ্রামের কোন শিক্ষার্থী কালির বাজার কারিগরি উচ্চ বিদ্যালয়ে যাবে না। তাঁরা তাদের সন্তানদেরকে বিদ্যালয় বয়কট করাবেন। বক্তারা আরো বলেন, দেলোয়ার দাড়োগা এলাকায় একটি সন্ত্রাসী বাহিনীকে অর্থ দিয়ে মদদ দিয়ে যাচ্ছে। ওই সন্ত্রাসী চক্রের লম্পটরা প্রায়ই ছাত্রীদেরকে উত্যাক্ত করে থাকে।

জোর করে তুলে নিয়ে ধর্ষনের ঘটনা উল্লেখযোগ্য থাকলেও বিদ্যালয়ের সভাপতি হিসেবে দেলোয়ার দাড়োগা  তার পোষা নষ্টাÑভ্রষ্টাদের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা গ্রহন করেননি বলেও অভিযোগ তারা। উল্লেখ, গত ১২ ডিসেম্বর কালির বাজার কারিগরি উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণীর এক শিক্ষার্থীতে শ্লীলতাহানির উদ্দেশ্যে তাড়া করে দ্বিতীয় সাতানীর মিলন মিয়ার ছেলে ছাত্রলীগ নেতা হাসান (১৯)।

ছাত্রীটি ভয়ে ওই বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য মো. জাকির হোসেনের বাড়িতে আশ্রয় নেয়। বিষয়টি জেনে জাকির হোসেন বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে অবহিত করলে ওই দিন দুপুরে  বিদ্যালয় কক্ষে ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি দেলোয়ার হোসেন দাড়োগার সভাপতিত্বে এক শালিস বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এতে ৩০হাজার টাকা জরিমানা হয় ইভটিজারের। এ নিয়ে মতানৈক্য হলে ইভটিজার গ্রুপের লোকজন উচ্চÑবাচ্য ব্যক্ত করে দেলোয়ার দাড়োগা ও সাদাতের নেতৃত্বে সন্ত্রাসী হামলা চালায়। এতে জাকির হোসেনসহ অনেকেই আহত হয়। গুরুতর আহতবস্থায় জাকির হোসেন বর্তমানে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *