মান্দার হলুদঘর মহিলা দাখিল মাদরাসা দীর্ঘ ১৮ বছরেও এমপিওভূক্ত হয়নি

12

আব্দুর রাজ্জাক (নওগাঁ)প্রতিনিধি: নওগাঁর মান্দা উপজেলার হলুদঘর মহিলা দাখিল মাদরাসা দীর্ঘ ১৮ বছর অতিবাহিত হবার পরেও এমপিওভূক্ত হয়নি। এতে বিদ্যালয়টির শিক্ষক/কর্মচারীরা তাদের পরিবার-পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছে।

জানা গেছে, সরকারী নীতিমালা অনুযায়ী প্রতিটি ইউনিয়নে অন্তত একটি করে বালিকা বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার বিধান রয়েছে। বহুবার আবেদন নিবেদন করে দীর্ঘ ১৮ আঠারো বছরেও এমপিওভূক্ত হয়নি। পাওয়া যায়নি সরকারী ভাবে ভবন। ফলে শিক্ষক-কর্মচারীদের মধ্যে অসন্তোষ দেখা দিয়েছে।

নির্ভরযোগ্য সূত্র জানায়, শিক্ষা অধিদপ্তরের নীতিমালা অনুযায়ী নারী শিক্ষার অগ্রগতি ও উন্নয়নের জন্য প্রত্যেক ইউনিয়নে অন্তত একটি করে বালিকা বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা হওয়া বাধ্যতামূলক রয়েছে। মান্দা উপজেলা এর ব্যতিক্রম। বিদ্যালয়টির দাতা ও প্রতিষ্ঠাতা তার নিজস্ব জমিতে প্রায় ১৮ বছর আগে এই বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠিত করেন। গরীব ও ৫ম শ্রেনি পর্যন্ত তার লেখাপড়া হলেও এলাকার জনগনের কথা চিন্তা করে তিনি জিএস বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠা করেন। এছাড়াও বিদ্যালয়টির  প্রায় ৫১ শতক নিজস্ব জমি রয়েছে।

বিদ্যালয়টিতে ৬ষ্ঠ থেকে ১০ম শ্রেণী মিলে প্রায়  সাড়ে ৪শত শিক্ষার্থী রয়েছেন। ১৫ জন শিক্ষক ও ৪ জন কর্মচারী কর্মরত রয়েছেন। গত ১০ বছরে এসএসসি পরীক্ষায় পাসের হার প্রায় শতভাগ। জেলার সরকারী বেসরকারী বিভিন্ন বিদ্যালয় থেকে কোন দিকেই এ প্রতিষ্ঠানটি পিছিয়ে নেই  প্রায় একই সাথে মাধ্যমিক শাখা এমপিও ভূক্তির যোগ্য হওয়া  সত্ত্বেও উপেক্ষিত থেকে যান এ অংশের ৭ জন শিক্ষক ও ১ জন কর্মচারী।

বেতন বিহীন ১৮ বছর চাকুরী করায় তাদের অনেকেই বিদ্যালয় থেকে অবসর নেবেন  আগামী ৩ থেকে ৫ বছরের মধ্যে।  অথচ এমপিওভূক্ত না হওয়ার দরুন এলাকার রাজনৈতিক মহল ও সুশীল সমাজের মধ্যে নানা রকম প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। এমপিও ভূক্ত  না হওয়ার দরুন তারা পরিবার পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছে। উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক স.ম জসিম উদ্দিন জানান, বিদ্যালয়টি দ্রুত এমপিওভূক্ত করা প্রয়োজন। উপজেলা আ’লীগের সভাপতি আলহাজ্ব মোল্লা মো. এমদাদুল হক বলেন, বিদ্যালয়টির উন্নয়ন এবং এমপিওভূক্তির বিষয়ে আমি সার্বিক সহযোগিতা করব।

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *