সুস্বাস্হ্যের জন্য মধূ

20প্রথম সকাল ডটকম ডেস্ক: মধু দুই অক্ষরের এই উপাদানটির স্বাস্থ্য গুণের কথা বলে শেষ করা যাবে না। সেই সুপ্রাচীন কাল থেকে এটা স্বীকৃত যে মধু হলো অনেক অসুস্থতার একমাত্র নিরাময়। বেশ প্রাচীনকালের রেকর্ড থেকে এটা জানা যায় যে মিশরীয়রা ও দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার লোকেরা ঔষধি বৈশিষ্ট্যের জন্য ৮০০ খ্রিষ্টাব্দ থেকে বিভিন্ন রোগের চিকিৎসায় মধু ব্যবহার করে আসছে।

এমনকি খাবারের সম্পূরক হিসেবেও মধুর ব্যবহার সর্বত্র। আসুন আজ আমরা মধুর অসাধারণ কিছু স্বাস্থ্য গুণ সম্পর্কে জেনে নেই। প্রতিদিন সকাল বেলা নাশতার আগে সমপরিমাণ লেবুর রস ও মধু সেবন করুন। এটি আপনার শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কয়েকগুণ বৃদ্ধি করবে।

যাদের রাতে ঠিকমতো ঘুম হয় না তারা রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে ১০ মিলিলিটার মধু গ্রহণ করুন। এতে ঘুম ভালো হবে। আপনার শরীরের বাড়তি ওজন কমাতে প্রতিদিন ১৫ মি.লি. মধু খান। আপনার হজম জনিত সমস্যা সমাধানে দুই টেবিল চামচ মধুর সাথে সামান্য গরম পানি মিশিয়ে দিনে দুইবার পান করুন। হজমজনিত সমস্যা দূর হয়ে যাবে।

মধু ও ভিনেগার সমপরিমাণ মিশিয়ে খেলে আপনার উচ্চ রক্তচাপ সমস্যা কমে যাবে। তাই ব্লাড প্রেশার নিয়ন্ত্রণে মধু ও ভিনেগার গ্রহণ করুন। এছাড়া দেহের রক্ত সঞ্চালন প্রক্রিয়াও স্বাভাবিক থাকবে। নিয়মিত মধু গ্রহণ করাতে আমাদের শরীরের ক্যালসিয়ামের মাত্রা বেড়ে যায়। শরীরের ক্যালসিয়াম জনিত সমস্যা সমাধানে মধু খান। মধু নিয়মিত ব্যবহারে কোষ্ঠকাঠিন্য দূর হয়।

আপনার স্মৃতি শক্তি আরও একধাপ বাড়িয়ে তুলতে নিয়মিত মধু গ্রহণ করুন। মধু আমাদের শরীরে ক্যান্সার ও টিউমারের বিরুদ্ধে প্রতিরোধক গড়ে তোলে। তাই ক্যান্সার ও টিউমারের আশংক্ষা কমাতে মধু গ্রহণ করুন। যখন একটি জিনিসেই একসাথে এতোগুলো উপকার পাচ্ছেন তখন চেষ্টা করুন আপনার প্রতিদিনের খাবারের তালিকায় কিছুটা হলেও মধু যোগ করার। নিজের সুস্থ জীবন নিশ্চিত করতে এই একটা জিনিসই অনেক সাহায্য করবে।

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *