মুজাহিদের আপিলের রায় মঙ্গলবার

প্রথম সকাল ডটকম (ঢাকা): মানবতাবিরোধী অপরাধে জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারি জেনারেল আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদ ‘চরম দণ্ড’ পাবেন বলে আশা প্রকাশ করেছেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। সোমবার (১৫ জুন) তার কার্যালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ১৬ জুন যুদ্ধপরাধের দায়ে দোষী সাব্যস্ত আলী আহসান মুজাহিদের আপিল মামলার রায়ের জন্য দিন ধার্য আছে।

অন্য মামলায় যা আশা করেছি, এ মামলায়ও চরম দণ্ড আশা করি। তিনি বলেন, বুদ্ধিজীবী হত্যার ব্যথা ৪৫ বছর ধরে বয়ে আসছি। এখানে যদি চরম দণ্ড না হয় তাহলে তাদের আত্মা শান্তি পাবেন না। তার বিরুদ্ধে আমরা অভিযোগ প্রমাণ করতে সমর্থ হয়েছি। অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, পূর্ণাঙ্গ রায় হলে খুশি হবো। আর সংক্ষিপ্ত হলে আশা করবো অল্প কিছুদিনের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ রায় পাবো।

আসামীপক্ষ যে যুক্তি উপস্থাপন করছেন সেগুলো বিবেচনায় নিয়ে আপিল বিভাগ মুজাহিদকে বেকসুর খালাস দেবেন বলে আশা করছেন আইনজীবী শিশির মনির। এর আগে ২৭ মে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেন, বুদ্ধিজীবী হত্যার পেছনে আল বদরের ভূমিকা ছিলো অনস্বীকার্য।

এ মামলায় দেখানোর চেষ্টা করেছি ছাত্র সংঘের সভাপতি হিসেবে মুজাহিদ আলবদরের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ছিলেন। পাকিস্তানি এক লেখকের ‘আল বদর’ নামক বই আদালতে হাজির করা হয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে মুজাহিদ ছাত্র সংঘের নাজেম। নাজেম মানে প্রধান। এছাড়াও ১৬ ডিসেম্বর আল বদরের লোকজন পাকিস্তানি বাহিনীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করে। সেখানে মুজাহিদ ছিলেন।

This website uses cookies.