জয়পুরহাটের কালাইয়ে স্কুলের মাঠে আলুর হাট : শিক্ষা কার্যক্রমে ব্যাঘাত ঘটছে

22দুলাল হোসেন (জয়পুরহাট): জয়পুরহাটের কালাই উপজেলার মাত্রাই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে প্রতি রবিবার ও বুধবার বসে মৌসুমী ফসলের বিষেশত করে আলু ও ধানের হাট। হাটে ক্রেতা-বিক্রেতাদের দর কষাকষি ও পণ্যবাহী ভটভটি ও ভ্যানের হর্ণ ও বেলের অবাঞ্চিত শব্দে শিক্ষার পরিবেশ বিঘিœত হচ্ছে। কোমলমতি শিক্ষার্থীরা পাঠে মনোনীবেশ করতে পারে না।

পারে না স্কুল মাঠে খেলা-ধুলা করতে। হাটের ধূলিকণা বাতাসে উড়ে যায় শ্রেণীকক্ষে। এতে একদিকে শিক্ষার্থীদের জামা-কাপড় নোংরা হয় অন্যদিকে তারা শ্বাসকষ্ট সহ ফুসফুসের নানা জটিল রোগে আক্রান্ত রোগে সংক্রমিত হয়। বছরের পর বছর এ অবস্থা চলমান থাকলেও এ নিয়ে কর্তৃপক্ষের কোন মাথা ব্যথা নেই। হাটে আলু বিক্রি করতে আসা স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, এ স্কুলের মাঠে প্রতি রোববার ও বুধবার হাট বসে।

ক্রেতা সিরাজুল ইসলাম বলেন, বাজারে জায়গা না হওয়ায় প্রতি বছর আলু ও ধানের হাট এ স্কুল মাঠে বসে। বিদ্যালয়ের বেশ কিছু ছাত্র/ছাত্রী জানান, হাটের দিনে নানা শব্দের কারণে পাঠে মন দিতে তাদের অসুবিধা হয়। স্কুলের মাঠে খেলা-ধুলা করা যায় না। মাত্রাই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শেখ ফরিদ উদ্দিন বলেন, স্কুলের মাঠে হাট না বসানোর জন্য হাট কর্তৃপক্ষদের বার বার নিষেধ করেও কাজ হয়নি। কালাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক কর্মকর্তা ডা. আবু হোসেন বলেন, ধুলিকণা শ্বাস-প্রশ্বাসের সাথে ফুসফুসে প্রবেশ করে। এতে কোমলমতি শিশুরা শ্বাসতন্ত্রের প্রদাহ জনিত রোগে আক্রান্ত হতে পারে। উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা জহুরুল বলেন, বিদ্যালয় মাঠে হাট বসার কোন খবর আমার জানা নেই। স্থানীয় চেয়ারম্যান বলেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সহযোগীতায় এ সমস্যা সমাধানের উদ্যোগ নেওয়া হবে।

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *