পেশাদার অভিনেত্রী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হতে চান শাকিলা

সলিম আহমদ: প্রথম নাটক ‘হৃদয় গহীনে’ এবং আলো আধারী’র কাজ শেষ হতে না হতেই নতুন কয়েকটি নাটক ও টেলিফিল্মে কাজ করছেন এ সময়ের ছোটপর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী শাকিলা আক্তার। দেবাশিষ বড়ুয়া দীপের পরিচালনায় ‘হৃদয় গহীনে’ এবং ‘আলো আধারী’ নাটক দুটি এটিএন বাংলায় প্রচার হয়েছে। বর্তমানে তিনি শরৎচন্দ্রের গল্প অবলম্বনে ধারাবাহিক নাটক ‘বইকুন্ঠের উইল’ এ অভিনয় করছেন। নাটকটি লিখেছেন আল মনসুর। পরিচালনা করেছেন জাহাঙ্গীর আলম সুমন। পাশাপাশি তিনি মোশারফ রোজীর লেখা ও পরিচালনায় ‘নীড় সাজাবার শুণ্যদায়’ নামে একটি টেলিফিল্মও অভিনয় করছেন।এ প্রসঙ্গে শাকিলা আক্তার প্রথম সকাল ডটকমকে বলেন, দেবাশীষ দাদার হাত ধরেই আমার অভিনয় জগতে অভিষেক ঘটে। যদিও আমি ঐসময় একেবারে নতুন ছিলাম। কিন্তু দেবাশীষ দাদা আমাকে সব কিছু শিখিয়ে দিয়েছিলেন। এরপর থেকে নবীন এবং প্রবীন ভাল ভাল অভিনেতাদের সাথে কাজ করেছি। সবার কাছ থেকে সহযোগীতাও পেয়েছি। তাইতো নিজেকেও অভিনয় জগতে ভালো একজন অভিনয় শিল্পী হিসেবে গড়ে তুলতে চাই। ছোট বেলা থেকেই শাকিলার অভিনয়ের প্রতি ছিল দুর্বলতা। একদিন ভাল অভিনেত্রী হবেন সেই স্বপ্ন তিনি দেখতেন।আলাপ কালে তিনি বলেন, আমার স্বপ্ন যে এভাবে বাস্তবে পরিনত হবে তা কোনদিন ভাবিনি। খুব লাজুক স্বভাবের মেয়ে শাকিলা রয়েল ইউনিভার্সিটি অব ঢাকাতে কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইন্জিনিয়ারিং বিভাগের ২য় বর্ষের ছাত্রী। লেখাপড়ার পাশাপাশি তিনি মডেলিং, নাচ ও নাটকে অভিনয় করছেন। ২৮ শে ডিসেম্বর বাগেরহাটে জন্মগ্রহন করেন শাকিলা। স্কুল জীবনের গন্ডি পেরিয়ে কলেজে পড়ালেখার জন্য ২০১০ সালে গ্রাম থেকে ঢাকাতে আসেন। সেই থেকে তিনি ঢাকাতেই আছেন। এক ভাই এক বোনের মধ্যে শাকিলা বড়। বাবা জিএম শহীদ পেশায় ডাক্তার। মা লাকি শহীদ সুলতানাও একজন ডাক্তার।নাটক ও টেলিফিল্মের পাশাপাশি তিনি রিয়েল এষ্টেট মাঝী বিল্ডার্স, রবিসহ বেশ কয়েকটি প্রতিষ্টানের মডেল হয়েছেন। সেই সাথে তিনি ফটো সেশন করে থাকেন। অভিনয় প্রসঙ্গে শাকিলা জানান, মা বাবার ইচ্ছে ছিল তিনি একজন ডাক্তার হবেন। কিন্তু নিজের মনে লুকিয়ে থাকা ইচ্ছে ছিল তিনি অভিনেত্রী হবেন। আর সেই ইচ্ছেটাকে সব সময় প্রাধান্য দিয়েছিলেন বলেইতো আজ হয়েছেন অভিনেত্রী। পর পর কয়েকটি নাটকে অভিনয় করে প্রশংসিত হওয়ার পর তিনি এখন পরিবারের সবার কাছ থেকে সহযোগীতা পাচ্ছেন।শাকিলার পরিবার অভিনয়ে তাকে উৎসাহ দিয়ে যাচ্ছেন। শাকিলা আক্তার অবসরে পরিবার ও ছোট ভাইকে সময় দেন। ৫ফুট ৫ইন্চি উচ্চতার অধিকারী শাকিলা আক্তার ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা কি জানতে চাইলে তিনি জানান, ভবিষ্যতে আমি শুধু আমার মেধাকে কাজে লাগিয়ে একজন ভাল অভিনেত্রী হতে চাই। অভিনয়কে পেশা হিসেবে নিতে চাই।বড় পর্দায় অভিনয়ের ইচ্ছা আছে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘ইচ্ছে অবশ্যই আছে। তবে মানসম্পন্ন চলচ্চিত্রে অভিনয় করতে চাই। তাই ভালো গল্প ও পরিচালকের সঙ্গে কাজ করার প্রস্তাব পেলে অবশ্যই তা গ্রহণ করব। তিনি বলেন, আমি অভিনয় নিয়েই স্বপ্ন দেখেছি সব সময়। তাই নিয়মিত অভিনয় করতে চাই। ভবিষ্যতে নিজেকে একজন পেশাদার অভিনেত্রী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে চাই। আপনাদের সবার দোয়া আর ভালবাসায় আমি আমার লক্ষ্যে একদিন পৌছব।

This website uses cookies.