প্রেমের মজার কিছু তথ্য

imagesপ্রথম সকাল ডটকম ডেস্ক: প্রেম সম্পর্কে লিখতে বসলে সে লেখা শেষ হওয়ার নয়। অনুরাগ, পূর্বরাগ, বিরাগ, মিলন, কত যে তার পর্যায়। তবে এবারের প্রেম একটু হাল্কা চলে। খুব বেশি সিরিয়াস বা সম্পর্কের টানাপোড়েন নিয়ে আলোচনা না করে এবারে জানা যাক প্রেম সম্পর্কিত কিছু মজাদার তথ্য- ১) অনেকেই মনে করে  প্রেমে পড়লে শুধু পুরুষরাই শারীরিক সৌন্দর্য দেখে। কিন্তু আদৌ তা নয়। নারীরাও পুরুষদের  বাহ্যিক সৌন্দর্য দেখে আকর্ষিত হয় আর সুপুরষ হলে তবেই কমিটমেন্টের কথা ভাবে। ২) লাভ শব্দটি এসেছে সংস্কৃত লুভায়াতি থেকে৷ এর অর্থ মনের ইচ্ছা। ৩) বিয়ের আংটি বা প্রেমিকের দেওয়া আংটি পরানো হয় অনামিকায়। কারণ অনেকের ধারণা এই আঙুলের সঙ্গে না কি হৃদয়ের যোগ রয়েছে। ৪) প্রায় ৪০% পুরুষই প্রেমিকার সঙ্গে প্রথম বার দেখা করার সময় প্রচণ্ড আত্মবিশ্বাসের অভাবে ভোগেন। ৫) প্রেম করতে গিয়ে যদি দেখেন প্রাক্তন প্রেমিক বা প্রেমিকার তুলনা বারে বারেই চলে আসছে, তাহলে বুঝতে হবে, আপনার মনের কোণায় এখনও পুরনো প্রেম নিয়ে দুর্বলতা রয়েছে। ৬) নতুন প্রেমে পড়া ছেলেমেয়েদের দেহে সেরেটোনিন নামক এক প্রকার হরমোন নিঃসরণ বেড়ে যায়, যা তাদের স্বভাবগত দিক থেকে খানিক দুঃখী করে। সাধারণ লোকজন এত বোঝেন না। তাদের ধারণা, প্রেমিকের বিরহেই প্রেমিকার এ দশা। ৭) সম্পর্ক নারীদের চাইতে পুরুষরাই বেশি ভাঙে। কারণ অনেক সময় তারা অল্পেতেই আত্মবিশ্বাসের অভাবে ভুগতে থাকেন। আর সবকিছুকেই বিচার করে আবেগ দিয়ে। ৮) ইদানীংকালে প্রায় ৪০% প্রেমিক-প্রেমিকা জানিয়েছে যে তাদের প্রেম আর ব্রেকআপ দুটোই হয়েছে অনলাইনে। ৯) গবেষণায় জানা গিয়েছে যে মাত্র তিনবারের ডেটিংয়েই পুরুষরা বুঝে ফেলে যে তারা প্রেমে পড়েছে। কিন্তু নারীদের ক্ষেত্রে সংখ্যাটা দশের উ… ১০) প্রেমের প্রথম দিকেই ব্রেকআপের সম্ভাবনা থাকে সবচেয়ে বেশি। কারণ তখন দুজন দুজনকে খুব একটা ভালো করে বুঝে উঠতে পারে না। আবেগও থাকে মারাত্মক। ১১) প্রত্যন্ত অঞ্চলের অনেক আদিবাসী প্রেমে পড়লেই সুতো সঙ্গে রাখে। সুতোর কোনও শেষ বা শুরু নেই৷ তাঁরা চান তাঁদের প্রেমও যেন এরকম অনন্ত হয়। ১২) প্রেমে পড়ার প্রথম দিকের অনুভূতি বা নতুন বিয়ের রোমাঞ্চ বছর খানেকের মধ্যেই ফিকে হয়ে যায়৷ কারণ বয়স, অভিজ্ঞতা খানিকটা বাড়ে। এক সঙ্গে চলতে চলতে প্রাথমিক উত্তেজনা, আবেগ অনেকটাই কমে যায়।  এবং মস্তিষ্ক কখনও ভিন্ন পরিস্থিতিতে মাথায় একই রকম অনুভূতি আনতে পারে না।

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *