৬ দফা দাবীতে রংপুরের ডিসি অফিস ঘেরাও : আহত ৮

মমিনুল ইসলাম রিপন,(রংপুর): ভেজাল নিম্মমানের ঔষধ বাজার জাত করন বন্ধ ঔষধের দাম কমানো সহ ৬ দফা দাবীতে জনস্বাস্থ্য অধিকার আন্দোলনের রংপুরের ডিসি অফিস ঘেরাও কর্মসূচিতে পুলিশের বাধা লাঠি চার্জ করার ঘটনায় ১ পুলিশ সহ ৮ জন আহত হয়েছে। পুলিশ ৫ বিক্ষোভ কারীকে আটক করেছে। গতকাল বৃহসপতিবার রংপুর নগরীর কাছারী বাজার এলাকায় ডিসি অফিসের সামনে দুপুর ১ টায় এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী জানায় ৬ দফা দাবিতে জনস্বাস্থ্য অধিকার আন্দোলনের কর্মীরা বৃহসপতিবার দুপুরে রংপুর প্রেসক্লাব চত্বরে মানব বন্ধন শেষে মিছিল নিয়ে রংপুরের ডিসি অফিসের সামনে গেলে পুলিশ মিছিল কারীদের বাধা দেয়। এ সময় মিছিল কারীরা নগরীর প্রধান সড়ক অবরোধ করার চেষ্টা করলে পুলিশ তাদের বাধা দেয় এ নিয়ে পুলিশের সাথে তাদের কথাকাটাকাটি শুরু হয়। পুলিশ মিছিল কারীদের উপর লাঠি চার্জ করে। এতে পুলিশের লাঠি চার্জে ৩ জন আহত হয়। পুলিশ মিছিল থেকে ৫ জন বিক্ষোভকারীদের আটক করে। এরা হলেন জন স্বাস্থ্য অধিকার আন্দোলনের সমন্ময়কারী বেলাল আহাম্মেদ, রংপুর বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মিলন চন্দ্র, সুময় চন্দ্র সরকার, কারমাইকেল করেলজের শিক্ষার্থী খায়রুল ইসলাম ও সংগঠনের সদস্য রেয়াজুল হাসান মানিক। পরে বিপুল সংখ্যক দাঙ্গা পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। এ ঘটনার নিন্দা জানিয়ে সংগঠনের উপদেষ্ঠা কারমাইকেল কলেজের শিক্ষার্থী লিপি বেগম অভিযোগ করেন তারা ৩ বছর ধরে ৬ দফা দাবিতে আন্দোলন চালিয়ে আসছেন। তাদের মুল দাবি ১৯৯৪ সালের ঔষধের কালো আইন বাতিল করে ১৯৮২ সালের ঔষধ নীতি বহাল করন, দফায় দফায় ঔষধ ও স্বাস্থ্য সুরক্ষায় স্যানেটারী ন্যাপকিনের মুল্য বৃদ্ধি বন্ধ, ভেজাল অপ্রয়োজনীয় ও নিম্নমানের ঔষধ উৎপাদন ও বাজারজাত করন বন্ধ খাদ্যে বিষাক্ত ফরমালিন ব্যাবহার ও বিষ প্রয়োগ বন্ধ করার জন্য কিন্তু তাদের শান্তিপুর্ন মিছিলে পুলিশ বিনা উস্কানীতে হামলা চালিয়ে লাঠি চার্জ করে সংগঠনের সমন্ময়ক সহ ৫ নেতা কর্মীকে আটক করেছে। আহত করা হয়েছে ৩ নেতা কর্মীকে। তবে কোতয়ালী থানার ওসি কাদের জিলানী অভিযোগ করেন বিক্ষোভ কারীদের বার বার প্রধান সড়ক পরিহার করে তাদের কর্মসূচি পালন করতে অনুরোধ জানানোর পরেও তারা না মানায় তাদের সরিয়ে দেয়া হয়েছে।

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *