নিজে কাঁদলেন, সবাইকে কাঁদালেন প্রধানমন্ত্রী

054 (2)প্রথম সকাল ডট কম ডেস্ক: ফিলিস্তিনে ইসরাইলের বর্বর হামলায় নিহতদের ছবি জাতীয় সংসদে তুলে ধরে কেঁদে ফেললেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এসময় উপস্থিত অন্যরাও কেঁদে ফেলেন। প্রধানমন্ত্রী ফিলিস্তিনি শিশুদের ওপর হামলার বর্ণনা করতে গিয়ে বেশ কয়েকবার আটকে যান। এসময় কান্নায় তার কণ্ঠ ভারী হয়ে আসে। কিছু সময় কথা বলতে না পেরে চুপ থাকেন তিনি। এ সময় পুরো সংসদ গ্যালারিতে নীরবতা নেমে আসে। শোকে বিহবল হয়ে পড়েন সংসদে উপস্থিত অন্য সদস্যরাও। এসময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, ফিলিস্তিন স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে প্রতিষ্ঠা পাক এটা সবারই দাবি। শেখ হাসিনা বলেন, বিশ্ব বিবেকের কি একটু নাড়া দেয় না। আবারও কান্না জড়িত কণ্ঠে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এই ছবি দেখানোর পর বসে থাকা যায় না। ফিলিস্তিনিদের পাশে কেউ না থাকলে বাংলাদেশ থাকবে। প্রয়োজনে আহত ফিলিস্তিনিদের বাংলাদেশে এনে চিকিৎসা দেওয়া হবে। মঙ্গলবার মাগরিবের নামাজের বিরতির পর পুনরায় সংসদ শুরু হলে শেখ সেলিম কর্তৃক আনীত কার্য প্রণালীর ১৪৭ বিধি অনুযায়ী প্রস্তাব সাধারণের উপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন। শেখ সেলিম গাজার ওপর ইসরায়েলি হামলা নিয়ে সংসদে এই নিন্দা প্রস্তাবটি উত্থাপন করেন। পরে প্রধানমন্ত্রী আনীত নিন্দা প্রস্তাবটি সমর্থন করেন। এ সময় সংসদে সভাপতিত্ব করেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। এর আগে বিকেল ৫টা ০৮ মিনিটে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে দিনের কার্যসূচি শুরু হয়।

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *