৯০ বছরের সেক্স-গুরু!

sexguruপ্রথম সকাল ডেস্ক: প্রযুক্তি গুরু! নেট গুরু! লাভ-গুরুর কথা কারও অজানা নয়৷ তবে, সেক্স-গুরুর কথা এবাব উঠে সংবাদ শিরোনামে৷ ৯০ বছরের এই সেক্স গুরুর পরামর্শ পেতে মরিয়া কাশ্মীর থেকে কন্যাকুমারী৷ উৎসুক আট থেকে আশি৷ মহিন্দর বস্ত৷ পেশায় চিকিৎসক৷ কিন্তু, তাঁর পরিচয় সেক্স গুরু হিসেবেই৷ বয়স ৯০ বছরের বৃদ্ধ৷ তাঁর সেক্স এবং জীবন সম্পর্কিত পরামর্শের সুফলে ভারতের হাজারো মানুষের জীবন সুখের হয়েছে৷ ভারতের একটি সংবাদপত্রে সেক্স-গুরু মহিন্দরের জীবনশৈলি এবং যৌন সংক্রান্ত কথা ছাপা হয়৷ তাঁর এই কলাম পড়ার জন্য হপ্তা ধরে উৎসুক হয়ে থাকেন হাজার হাজার পাঠক৷ গত ৫০ বছর ধরে তিনি তাঁর এই কলামের মাধ্যমে হাজার হাজার পুরুষ-মহিলার যৌন জীবনকে রঙিন করেছেন৷ যৌন সংক্রান্ত নানা ভয়-ডরকে জয় করার পরামর্শ এবং সাহস জুগিয়েছেন সেক্স-গুরু মহিন্দর৷ যৌনজীবনকে মধুর করে তুলতেই এই দেশের রচিত হয়েছে কামসূত্রের মতো গ্রন্থ৷ এই দেশেই আবার বহু মানুষ যৌন সমস্যা নিয়ে জর্জরিত৷ অনেক ভারতীয় মহিলা-পুরুষেরই সেক্স নিয়ে নানা ভয়-শঙ্কা রয়েছে৷ এমনকি, যৌন শিক্ষা সম্পর্কে অজ্ঞতার কারণে বহু সংসার ভেঙেছে৷ বিপথগামী হয়েছেন নারী-পুরুষ৷ এই সমস্ত যৌনভীতি দূর  করতে গত ৫০ বছর ধরে যৌন শিক্ষায় শিক্ষিত করে তোলার কাজ করে চলেছে সেঞ্চুরি ছুঁই ছুঁই মহিন্দর৷ বিবিসিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে মহিন্দর বলেছেন, ‘সেক্স একটি আনন্দদায়ক বিষয়৷ কিন্তু, কিছু লেখক ভারি ভারি শব্দ ব্যবহার করে একে মেডিক্যাল সায়েন্সের সঙ্গে জুড়ে দিয়ে বিষয়টিকে গম্ভীর করে তোলে৷ চুটিল জবাব! সেক্স গুরু মহিন্দরের জবাব হয় খুব ছোট ছোট এবং প্রাসঙ্গিক৷ কখনও কখনও তাঁর জবাব শুনে হাসিও পেয়ে যায়৷ তিনি বলছেন, আমি মানুষের সঙ্গে জড়িত শব্দতেই কথা বলি এবং জবাব দিই৷ এতে প্রশ্নদাতারাও স্বীকার করে নেন৷ মানুষ সহজ সরলভাবেই শুনতে ভালবাসে৷ এতে সমস্যা অনেকটা দূর হয়ে যায়৷’ আর তার এই সেক্স সম্পর্কিত পরামর্শ এতটাই সাবলীল যে হাজার হাজার মানুষ তাদের যৌনজীবনকে  নতুনভাবে ফিরে পাচ্ছেন৷  মানুষের কাছে জনপ্রিয়তা বাড়তে নব্বইয়ের সেক্স-গুরুর৷

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *