আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা

69প্রথম সকাল ডেস্ক: বুধবার তোবা গ্রুপসহ পাঁচটি কারখানার শ্রমিকদের বকেয়া বেতন প্রদানের আশ্বাস দিয়েছে বিজিএমইএ। তাদের এ আশ্বাসকে  ঘৃণাভরে প্রত্যাখান করেছে অনশনরত তোবা গার্মেন্টের শ্রমিকরা। পাশাপাশি আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ারও ঘোষণা দিয়েছেন তারা। রোববার সন্ধ্যায় এক প্রশ্নের জবাবে একথা জানিয়েছেন অনশনরত গার্মেন্টস শ্রমিক ঐক্য ফোরামের সভাপতি মোশরেফা মিশু। বিজিএমইএ’র বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে তিনি বলেন, বিজিএমইএ এর আগেও বহুবার এমন আশ্বাস দিয়েছে। ঈদের আগেও এমন আশ্বাস দিয়ে তারা কথা রাখেনি। তাদের এমন আশ্বাসে আমাদের আন্দোলন থামবে না। আমাদের হাতে বেতন না আসা প্রর্যন্ত আমাদের আন্দোলন চলবে। তিনি আরো বলেন, বিজিএমইএ ও মন্ত্রীদের এসব মশকরা বন্ধ করা উচিত। তোবা গ্রুপের পাঁচটি কারখানার শ্রমিকদের তিন মাসের বেতনের এক টাকা কম হলেও নেওয়া হবে না বলেও হুঁশিয়ারি দেন তিনি। এর আগে বিকেল ৩টায় তিন মাসের বেতন-বোনাস আদায়সহ ৫ দফা দাবিতে এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করেছে তোবা গ্রুপ শ্রমিক সংগ্রাম কমিটি। কর্মসূচির অংশ হিসেবে ৫ আগস্ট বিজিএমইএ ভবন ঘেরাও করা হবে বলেও জানানো হয়। সংবাদ সম্মেলনে মোশরেফা মিশু বলেন, ৭ দিনের অনশনে আমাদের শরীরের সকল যন্ত্রনার ছাপ তাদের (মালিক ও মন্ত্রী) গায়ে লাগিয়ে দেওয়া হবে। এরপরেই বিকেলে বিজিএমইএ ভবনে শ্রমিকপক্ষ, নৌ-পরিবহন মন্ত্রী শাহজাহান খান ও শ্রম প্রতিমন্ত্রী মজিবুল হক চুন্নুর সঙ্গে বৈঠক করেন বিজিএমইএ নেতারা। বৈঠক শেষে বিজিএমইএ’র ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এম এ মান্নান কচি সাংবাদিকদের বলেন, বুধবার সকাল ১০টার দিকে  বিজিএমইএ ভবনে তোবা গ্রুপের ১ হাজার ৬০০ শ্রমিকের মে ও জুন মাসের বেতন পরিশোধ করা হবে। আর জুলাই মাসের বেতন ১০ তারিখের পরে দেওয়া হবে।

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *