রাজনীতি করতে আসিনি : রাস্তার কাজে এসেছি

প্রথম সকাল ডেস্ক: ‘আমি এখানে রাজনীতি করতে আসিনি, রাস্তা সংস্কারের কাজে এসেছি। এখানে কোনো রাজনৈতিক স্লোগান হবে না। যোগাযোগমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের যশোর-খুলনা মহাসড়ক পরিদর্শনের অংশ হিসেবে বুধবার বেলা সাড়ে ১১টায় শিল্প শহর নওয়াপাড়ায় আসেন। তার আগমনকে ঘিরে আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতা-কর্মীরা দলীয় স্লোগান দিতে থাকলে মন্ত্রী তাদের উদ্দেশে এ কথা বলেন। এ সময় তিনি রাস্তার বেহাল দশা দেখে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, নির্ধারিত সময়ের মধ্যে মহাড়সকগুলো সংস্কার করতে ব্যর্থ হওয়ায় সড়ক ও জনপথ (সওজ) বিভাগের খুলনা জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্র্রকৌশলী মো. আলীকে কারণ দর্শানোর (শোকজ) নোটিশ দেওয়া হয়েছে। এদিকে যশোরের নিবার্হী প্রকৌশলী মোহাম্মদ জিয়াউল হায়দার, সাতক্ষীরার নির্বাহী প্রকৌশলী সাইফুদ্দিন ও কুষ্টিয়ার নির্বাহী প্রকৌশলী মেহেদী খানকে তিন দিনের মধ্যে যশোর-খুলনা মহাসড়ক সংস্কারের জন্য দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে বলে জানান যোগাযোগমন্ত্রী। সাংবাদিকদের মন্ত্রী বলেন, ‘আমি মন্ত্রী হওয়ার পর সাতবার এই সড়কে এসেছি। কিন্তু  সড়কটি যোগাযোগের উপযোগী না হওয়ায় এক ঠিকাদারের কার্যাদেশ বাতিল করে নতুন ঠিকাদার নিয়োগ করা হয়েছে। এই ঠিকাদারও যদি কাজ করতে না পারে, তবে জনস্বার্থে ঈদের পর তারও কার্যাদেশ বাতিল করা হবে। ওবায়দুল কাদের আরো বলেন, ‘যশোর-খুলনা মহাসড়কের ৬৬ কিলোমিটার রাস্তার মধ্যে মাত্র তিন কিলোমিটার রাস্তার অবস্থা খুব খারাপ। এর ভেতরে দেড় কিলোমিটার রাস্তা সংস্কার করা হয়েছে। বাকি দেড় কিলোমিটার রাস্তার অবস্থা খুবই নাজুক। অন্যদিকে মন্ত্রী আসার আগে আজও যশোর-খুলনা মহাসড়ক তড়িঘড়ি করে গোজামিল দিয়ে সংস্কার কাজ চালাতে দেখা গেছে। রাস্তার কোথাও কোথাও ইট, বালি, খোয়া ফেলে সংস্কার করা হচ্ছে।

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *