ভারতের উন্নাওতে ধর্ষণ : এবার অভিযুক্ত কাউন্সিলর

প্রথম সকাল ডটকম ডেস্ক: তালিকা কি ক্রমশ বাড়ছে? উত্তরপ্রদেশের উন্নাও জেলার সাফিপুর এলাকায় এবার উঠল ধর্ষণের অভিযোগ৷ এলাকারই কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ এনেছেন এক মহিলা৷

ইমরান নামে ওই কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে অভিযোগ সে এবং তার শাকরেদ ওই মহিলাকে ধর্ষণ করে৷ পরে ভয় দেখিয়ে তাঁকে চুপ করিয়ে রাখে৷ ধর্ষণের ছবি ভিডিও করে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছেড়ে দেওয়া হবে বলে ব্ল্যাকমেল করা হয় মহিলাকে৷

নির্যাতিতার স্বামী সাংবাদিকদের জানান সমাজবাদী পার্টির সদস্য অভিযুক্ত৷ দলীয় প্রভাব খাটিয়ে সে নির্যাতিতা ও তার পরিবারের মুখ বন্ধ রাখার চেষ্টা করে৷

দু মাস আগে ওই অভিযুক্ত কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হলেও, এখনও তাকে গ্রেফতার করেনি পুলিশ৷ প্রকাশ্যেই ঘুরে বেড়াচ্ছে অপরাধী৷

তবে পুলিশের সাফাই দু মাস আগে নয়, কয়েকদিন আগেই এফআইআর করা হয়েছে৷ তদন্ত শুরু হয়েছে৷ উন্নাওয়ের এএসপি অনুপ সিং বলেন অভিযোগ পাওয়ার সাথে সাথেই তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ৷ এফআইআর-ও তখনই দায়ের করা হয়৷ দ্রুত অপরাধী শাস্তি পাবে বলে জানানো হয়েছে৷

প্রসঙ্গত, উন্নাওতে ১৮ বছর বয়সী এক তরুণীকে স্থানীয় বিধায়ক ধর্ষণ করে বলে অভিযোগে উত্তাল হয়ে ওঠে দেশ। বিষয়টি নিয়ে তরুণী থানায় অভিযোগ জানাতে এলে অভিযোগ নেওয়া তো দূরের কথা তার বাবাকে গ্রেফতার করে জেলের মধ্যে হত্যা করা হয়৷ ওই বিজেপি বিধায়ককে যথাসময়ে গ্রেফতারও করা হয়নি বলে অভিযোগ ওঠে৷ পরে চাপে পড়ে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ৷ সুত্র:- কলকাতা ২৪

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *