ভৈরবে এলিন ফুড কোম্পানির বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ

আলহাজ্ব সজীব আহমেদ, ভৈরব, (কিশোরগঞ্জ): কিশোরগঞ্জের ভৈরবে গরীব ও মানসিক রোগী বলে ঠাই মিলছেনা কারো কাছে। বসতবাড়ি দখল করে দেওয়াল নির্মাণের অভিযোগ পাওয়া গেছে পৌর শহরের লক্ষীপুর এলাকায় একটি এলিন ফুড প্রোডাক্টস্ এর বিরুদ্ধে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, মানসিক রুগী হেলাল মিয়ার পতিত বাড়িতে এলিন ফুড প্রোডাক্টস কোম্পানি ইটের দেওয়াল নিমার্ণে শ্রমিকরা কাজ করছে। স্ত্রী রেহেনা বেগম দেয়াল নির্মাণে বাধা দিলে পুলিশের ভয় দেখিয়ে পূনরায় নিমার্ণ কাজ শুরু করে।

মানসিক রোগী হেলাল উদ্দিনের স্ত্রী রেহেনা বেগম অভিযোগ করে বলেন, তার স্বামী কয়েক বছর পূর্বে স্থানীয় লক্ষীপুর এলাকার মৃত হাছান মিয়ার ছেলে মো. রোকন মিয়ার কাছ থেকে এস.এ নং ৩৯১৪, আর. এস নং ৬৮৬,৬৮৭,৬৮৮ দাগে মোট সোড়া ৭ শতাংশ বসত বাড়ি ক্রয় করেন।

এর মধ্য আর.এস নং ৬৮৮ দাগের ২ শতাংশ পতিত জমি ছিল। প্রতিবেশী ভাতিজা শামীমকে মানবতার সহিত পতিত জমি ব্যবহারের জন্য দেওয়া হয়। কিন্তু শামীম সরলতার সুযোগ নিয়ে ঐ পতিত জমি জালিয়াতি করে লক্ষীপুরে অবস্থিত এলিন ফুড প্রোডাক্টস কোম্পানির নিকট বিক্রি করে দেয়।

এ সুবাধে প্রভাব খাটিয়ে পতিত জমিতে দেওয়াল নিমার্ণ করছে কোম্পানির কর্তৃপক্ষ। এ বিষয়ে জানতে চাইলে এলিন ফুড প্রোডাক্টস এর ম্যানেজার রঞ্জন কুমার জানান, তাদের কোম্পানি স্থানীয় বাসিন্দা আলতাফ হোসেন আলতু, শামীম ও কফিল উদ্দিনে কাছ থেকে বিভিন্ন দাগে  মোট প্রায় ১৬ শতাংশ জমি ক্রয় করেন।

ক্রয়সুত্রে তারা জমিতে দেওয়াল স্থাপন করছে বলে দাবি করেন তিনি। তিনি আরো জানান, রেহেনা বেগম যদি সঠিক কাগজ দেখাতে পারে তাহলে আমরা তার সমস্যা সমাধান করে দেব। স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর মিন্টু মিয়া বলেন, এলিন ফুড প্রোডাক্টস কোম্পানিকে বলেছি আপনারা জমি কিনবেন ভালো যার জমি তার কাছ থেকে কিনবেন এবং সঠিক কাগজপত্র দেখে শুনে কিনেন।

আমার কাছে এ ব্যাপারে অভিযোগ এসেছে। বিষয়টি আমি সমাধানে জন্য কাজ করছি। এ বিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা দিলরুবা আহমেদ জানান, আমার কাছে এ ব্যাপারে লিখিত অভিযোগ এসেছে। ঘটনাটি দ্রুত তদন্ত করে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *